মেইন ম্যেনু

অথচ ফোন করে কোনো হদিস মিলছে না…

মাঝে মধ্যেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এধরনের পোস্টার পাওয়া যায় এবং এগুলো ভাইরাল হয়ে পরে। যেমন, উপরের দুটি পোস্টারে দুটি বিষয় তুলে ধরা হয়েছে। বাম দিকের পোস্টারের বিষয় বস্তু হচ্ছে- একজনের স্ত্রী আরেকজনের সঙ্গে পালিয়ে গিয়েছেন। নাম-ধাম, ছবি, ঠিকানা সবই যুক্ত করা হয়েছে পোস্টারের। এমনকি ফোন নম্বরও দেওয়া হয়েছে.

এদিকে ডানদিকের পোস্টারের বিষয়বস্তু ভিন্ন। সেখানে দোয়া খায়ের করা এবং কোন দোয়ার জন্য কী পরিমাণ হাদিয়া নির্দিষ্ট করা- সেটি উল্লেখ করা হয়েছে। এটির নিচেও ফোন নম্বর দেওয়া রয়েছে। বিষয়গুলো যাচাই করে দেখতে প্রিয়.কম যোগাযোগ করার চেষ্টা করেছিল, ফোন দিয়েছিল পোস্টারে প্রদেয় নম্বরগুলোতে। বেশ কয়েকদিন ধরেই ওসব নম্বরে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেছিল প্রিয়.কম। কিন্তু একবারের জন্যও খোলা পাওয়া যায়নি একটি নম্বরও।

প্রশ্ন জাগে, কেন তাহলে এসব প্রচারণা? এসব পোস্টারের সত্য-মিথ্যার যাচাই সম্ভব হয়নি, কেন না- যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও এখন পর্যন্ত ফোন করে কোনো হদিস মেলেনি। সত্য হলে তো হলোই, কিন্তু এসব পোস্টার যদি নিছক মজা করার জন্য কিংবা মিথ্যা ও বানোয়াট হয়, তখন কী পরিণতি হবে সেটা ভেবে দেখেছেন কি?

যদি সত্যি সত্যিই কখনো এধরনের ঘটনা ঘটে এবং কেউ পোস্টার তৈরি করে, তাহলে হয়তো ওসব সত্য ঘটনাও আড়াল হয়ে যাবে মিথ্যাচার ও নিছক মজা করার উদ্দেশ্যে তৈরি করা পোস্টারের কারণে।






মন্তব্য চালু নেই