মেইন ম্যেনু

অবশেষে আর্জেন্টিনা দলে ফিরলেন মেসি ও ডি মারিয়া

২০১৮ সালের রাশিয়া বিশ্বকাপের পর এখনো পর্যন্ত আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের হয়ে মাঠে নামেননি দেশটির সবচেয়ে বড় তারকা ফুটবলার লিওনেল মেসি। দলে জায়গা হয়নি পরীক্ষিত মিডফিল্ডার অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়ারও। অবশেষে প্রায় ৮ মাস পর আলবিসেলেস্তেদের হয়ে খেলতে দলে ফিরেছেন এ দুই তারকা ফুটবলারই।

চলতি মাসের শেষ দিকে মরক্কো এবং ভেনিজুয়েলার বিপক্ষে দুইটি প্রীতি ম্যাচ খেলবে আর্জেন্টিনা। সে ম্যাচের জন্য ৩১ সদস্যের প্রাথমিক দল ঘোষণা করেছেন আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনি। যেখানে পূর্ব নির্ধারিতভাবেই ফিরেছেন মেসি, সঙ্গে নেয়া হয়েছে ডি মারিয়াকেও।

তবে আরেক তারকা ফুটবলার ম্যানচেস্টার সিটির হয়ে দুর্দান্ত খেলতে থাকা ফরোয়ার্ড সার্জিও আগুয়েরোকে স্কোয়াডে রাখেননি স্কালোনি। ৩০ বছর বয়সী এ স্ট্রাইকারকে না রাখার ব্যাখ্যায় আর্জেন্টাইন কোচ বলেন, ‘তার সঙ্গে আমার কখনও কোনো মতানৈক্য হয়নি। সে খুব ভালো খেলোয়াড়। তাকে পরখ করার কিছু নেই, অন্য খেলোয়াড়দেরকে আমার দেখতে হবে।’

মেসিকে জাতীয় দলে ফেরানোর ব্যাপারে স্কালোনির মন্তব্য, ‘মেসিকে দলে ডাকা হয়েছে। সে একটি নাকি দুটি ম্যাচ খেলবে, এ বিষয়ে আমরা সিদ্ধান্ত নেবো। (বার্সেলোনার হয়ে) সে অনেক ম্যাচ খেলছে এবং মৌসুমের এ সময়ে খেলোয়াড়রা ক্লান্ত থাকে এবং আন্তর্জাতিক সূচিতে বিশ্রাম নেয়। কিন্তু মেসি আসতে চেয়েছে আর এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ একটা পদক্ষেপ। মেসি কতখানি খেলবে সে বিষয়ে আমি সিদ্ধান্ত নিব, অন্য কেউ নয়।’

এদিকে মেসি-ডি মারিয়া ফিরলেও ৩১ জনের দলেও জায়গা পাননি ইতালিয়ান ক্লাব নাপোলির তারকা ফরোয়ার্ড গঞ্জালো হিগুয়াইন। আর চোটের কারণে মাঠের বাইরে থাকায় স্বাভাবিকভাবেই দলে জায়গা হয়নি ইন্টার মিলানের ফরোয়ার্ড মাউরো ইকার্দির।

আগামী ২২ মার্চ অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের মাঠ ওয়ান্দা মেট্রোপলিটানোতে ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে খেলবে
আর্জেন্টিনা। চারদিন পর মরক্কোর মাঠে খেলতে নামবেন মেসি-ডি মারিয়ারা।

আর্জেন্টিনার ৩১ সদস্যের স্কোয়াড

গোলরক্ষক: অগাস্টিন মার্চেসিন (ক্লাব আমেরিকা), হুয়ান মুসো (উদিনেস), এস্তেবান আন্দ্রাদা (বোকা জুনিয়র্স), ফ্রাঙ্কো আরমানি (রিভার প্লেট)

ডিফেন্ডার: জার্মান পিজেল্লা (ফিওরেন্তিনা), গ্যাব্রিয়েল মার্কাদো (সেভিয়া), হুয়ান ফয়েথ (টটেনহাম হটস্পার), নিকলাস ওটামেন্ডি (ম্যানচেস্টার সিটি), ওয়াল্টার ক্যানেমান (গ্রেমিও), নিকলাস তালিয়াফিকো (আয়াক্স), মার্কস আকুনা (স্পোর্টিং লিসবন), গঞ্জালো মন্টিয়েল (রিভার প্লেট), রেঞ্জো সারাভিয়া (রেসিং ক্লাব), লিসান্দ্রো মার্টিনেজ (ডিফেন্সা জাস্টিসিয়া)

মিডফিল্ডার: লিওনার্দো পারেদেস (প্যারিস সেন্ট জার্মেই), গুইদো রদ্রিগেজ (ক্লাব আমেরিকা), জিওভানি লো সেলসো (রিয়াল বেটিস), ম্যানুয়েল লানজিনি (ওয়েস্ট হ্যাম), রবার্তো পেরেইরা (ওয়াটফোর্ড), অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া (প্যারিস সেন্ট জার্মেই), মাতিয়াস জারাকো (রেসিং ক্লাব), ইভান মার্কোন (বোকা জুনিয়র্স), ডোমিঙ্গো ব্লাঙ্কো (ডিফেন্সা জাস্টিসিয়া), রদ্রিগো ডি পল (উদিনেস)।

ফরোয়ার্ড: লিওনেল মেসি (বার্সেলোনা), গঞ্জালো মার্টিনেজ (আটলান্টা ইউনাইটেড), পাওলো দিবালা (জুভেন্টাস), অ্যাঞ্জেল কোররেয়া (অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ), লাউতারো মার্টিনেজ (ইন্টার মিলান), দারিও বেন্দেত্তো (বোকা জুনিয়র্স), মাতিয়াস সুয়ারেজ (রিভার প্লেট)।



মন্তব্য চালু নেই