মেইন ম্যেনু

অবৈধ পার্কিংয়ে ক্রমেই ছোট হচ্ছে ঢাকার রাজপথ

অবৈধ কার পার্কিং বন্ধ না হওয়ায় ক্রমেই সংকুচিত হচ্ছে রাজধানীর রাজপথ। এ কারণে জটিল হচ্ছে যানজট পরিস্থিতি। পর্যাপ্ত পার্কিংয়ের জায়গা না থাকায় বাধ্য হয়ে রাজপথে গাড়ি রাখতে হচ্ছে বলে দাবি চালকদের।

পরিস্থিতি সামাল দিতে হিমসিম খাচ্ছে ট্রাফিক বিভাগ। এ অবস্থায় সমস্যা সমাধানে নতুন পার্কিং জোন তৈরিসহ অন্য কার্যকর উপায় খুঁজছে সিটি করপোরেশন।

রাজধানীর আব্দুল গণি রোড। সচিবালয় সংলগ্ন এই রাস্তার দু’পাশে শত শত গাড়ি রাখা হয় প্রতিদিনই। অথচ পার্কিং নিষিদ্ধ করে রাস্তাটির কয়েক মিটার পর পর সাইনবোর্ড টানিয়ে দেয়া হয়েছে বেশ আগেই। কিন্তু তাতে যেন কোনো ভ্রুক্ষেপই নেই কারো।

শুধু আব্দুল গণি রোড নয়, রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার অলিগলি থেকে শুরু করে ছোট বড় প্রায় সব রাস্তাই অবৈধ পার্কিং কবলিত। এ কারণে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে স্বাভাবিক যান চলাচল। যত্রতত্র কার পার্কিংয়ের ধকল সামাল দিতে বেগ পেতে হচ্ছে ট্রাফিক বিভাগকে।

তথ্যমতে, রাজধানীতে কয়েকটি পার্কিংয়ের জায়গা থাকলেও নানা কারণে সেগুলো ব্যবহার হচ্ছে না। আবার অধিকাংশ ভবনেই নেই গাড়ি রাখার প্রয়োজনীয় জায়গা।

ডিএমপির শাহবাগ জোনের সহকারী কমিশনার শাহেদ আহমেদ বলেন, ‘গাড়ির চাপ প্রচণ্ড এর ভেতরেও একটা আলাদা পার্কিং দরকার হওয়ায় জ্যাম আরো বেড়ে যায়।’

সমস্যা সমাধানে আবাসিক ও বাণিজ্যিক ভবনে পর্যাপ্ত পার্কিংয়ের জায়গা নিশ্চিত করতে রাজউককে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে বলে জানালেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের দায়িত্বশীল কর্মকর্তা খান মোহাম্মদ বিলাল।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী খান মোহাম্মদ বিলাল বলেন, বিল্ডিং এর গাড়িগুলো যেন বেরিয়ে না যায়, সে বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে।

তথ্যমতে, প্রতিদিন শতাধিক নতুন প্রাইভেট কার নামছে রাজধানীতে। এ কারণে পরিস্থিতিও ক্রমেই জটিল হয়ে উঠছে।



মন্তব্য চালু নেই