মেইন ম্যেনু

আদালতের কর্মচারীকে মারধর, বরিশালে এসআই ক্লোজড

আদালতের এক কর্মচারীকে মারধরের অভিযোগে বরিশাল কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) খালেকুল বাদশাহকে ক্লোজড করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে তাকে কোতয়ালি থানা থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইন্সে সংযুক্ত করা হয়।

মারধরের শিকার মো. খান আসলাম বরিশাল অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের এমএলএসএস (চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী) পদে কর্মরত। চাকরির সুবিধার্থে নগরীর ফজলুল হক এভিনিউ টিঅ্যান্ডটি মসজিদ সংলগ্ন মেসে থাকেন তিনি।

বরিশাল চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী মো. খান আসলামকে গত মঙ্গলবার রাতে পুলিশ বেদম মারধর করেছিল। বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের মুখপাত্র সহকারী কমিশনার নাসির উদ্দিন মল্লিক এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, আদালতের এক কর্মচারীকে বিনাকারণে মারধর করার অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় এসআই খালেকুল বাদশাহকে কোতোয়ালি থানা থেকে পুলিশ লাইন্সে ক্লোজডের নির্দেশ দিয়েছেন পুলিশ কমিশনার মো. মোশারফ হোসেন।

প্রসঙ্গত, আদালতের চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী আসলাম খান গত মঙ্গলবার রাত পৌনে ১২টার দিকে মোবাইলে ফোনে রিচার্জ করার জন্য আদালত সংলগ্ন মেস থেকে সড়কে বের হন। রিচার্জের পর মেসের সামনে দাঁড়িয়ে পারিবারের সদস্যদের সঙ্গে মোবাইলে কথা বলছিলেন। এসময় এসআই খালেকুল বাদশার নেতত্বে একদল টহল পুলিশ গভীর রাতে সড়কে বের হওয়ায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। এ নিয়ে আসলামের সঙ্গে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে পুলিশ সদস্যরা তাকে বেদম মারধর করে। পরদিন আসলাম এ বিষয়ে অভিযোগ জানিয়ে পুলিশ কমিশনারের কাছে লিখিত অভিযোগ দেন।



মন্তব্য চালু নেই