মেইন ম্যেনু

প্রশাসনিক কাজে স্থবিরতা

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের অবরোধ কর্মসূচী দ্বিতীয় দিনে চলছে

শাহিনুর রহমান শাহিন, জাবি প্রতিনিধি: মর্মান্তিক সড়ক দুঘর্টনায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীদের উপাচার্যের বাসভবন ভাঙচুর ও শিক্ষক লাঞ্চিতের অভিযোগে শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে প্রশাসনের দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ডাকা প্রশাসনিক ভবন অবরোধ কর্মসূচী দ্বিতীয় দিনে চলছে। প্রশাসনিক ভবন অবরুদ্ধ থাকায় স্থবিরতা দেখা দিয়েছে সকল প্রকার দাফতরিক কর্মকান্ডে।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টা থেকে “প্রতিবাদের নাম জাহাঙ্গীরনগর” ব্যানারে গতকাল সোমবারের ন্যায় পূর্ব ঘোষিত অবরোধের এ কর্মসূচী শুরু করে শিক্ষার্থীরা। কর্মসূচীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের এপর্যন্ত অর্ধ শতাধিক শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছে।

এদিকে আজ সকাল ১০ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় কর্মকর্তা-কর্মচারী সমিতির নেতৃবৃন্দ মাসের শুরুতে বেতন তোলার অজুহাত দেখিয়ে আজকের দিনের জন্য অবরোধ প্রত্যাহারের অনুরোধ জানান।

জবাবে শিক্ষার্থীরা বলেন, “আপনাদের মতো আমরাও ভোগান্তিতে আছি। দুই পক্ষের ভোগান্তির সমাধান বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে আছে। আপনারা প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিদের সমস্যার সমাধান করতে বলেন। ”

অবরোধ কর্মসূচি কতদিন চলবে অবস্থানরত শিক্ষার্থীদের কাছে জানতে চাইলে তারা বলেন, “মামলা প্রত্যাহার বিষয়ে কোন সুরাহা না হওয়া পর্যন্ত এ অবরোধ চলবে। ”

অবরোধ বিষয়ে ছাত্র ইউনিয়ন জাবি সংসদের সভাপতি ইমরান নাদিম বলেন, প্রশাসনের আর কোনো আশ্বাস নয় বরং তারা কার্যকর ব্যবস্থা নিলেই আমরা আন্দোলন প্রত্যাহার করবো। মামলা প্রত্যাহার না হওয়া পর্যন্ত অবরোধ কর্মসূচি চলবে। ”

উল্লেখ্য, গত ২৭ মে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার ঘটনায় মহাসড়ক অবরোধ ও উপাচার্যের বাসভবন ভাঙচুরের অভিযোগে ৫৬ শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে বিভিন্নভাবে আন্দোলন চালিয়ে আসছে শিক্ষার্থীরা। তারই ধারাবাহিকতায় রবিবার মশাল মিছিল ও গতকাল এবং আজ প্রশাসনিক ভবন অবরোধ কর্মসূচি পালন করছে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।






মন্তব্য চালু নেই