মেইন ম্যেনু

আলজাজিরার কাছে প্রমাণ দাবি পাকিস্তানের

সব টেস্ট খেলুড়ে দেশ স্পট ফিক্সিংয়ের সঙ্গে জড়িত। কিছু দিন আগে এ খবর জানিয়ে ক্রিকেটবিশ্বে তোলপাড় সৃষ্টি করেছিল কাতারভিত্তিক টেলিভিশন চ্যানেল আলজাজিরা। সম্প্রতি ১৫টি পাতানো ম্যাচের তালিকা প্রকাশ করে ফের হইচই ফেলে দিয়েছে চ্যানেলটি। এর মধ্যে চারটি ম্যাচের সঙ্গে জড়িত ম্যাচ গড়াপেটার আঁতুড়ঘরখ্যাত পাকিস্তান।

সেই পরিপ্রেক্ষিতে জবাব দিয়েছে পিসিবি। তাতে আলজাজিরার দাবি সরাসরি প্রত্যাখ্যান করেছে বোর্ড। তাতেই ক্ষ্যান্ত হননি পাকিস্তান ক্রিকেট কর্মকর্তারা। উপরন্তু প্রমাণও চেয়ে বসেছেন তারা।

এক বিবৃতিতে পিসিবি জানিয়েছে, আলজাজিরার সদ্য প্রকাশিত তালিকায় যেসব ম্যাচে ফিক্সিংয়ের ঘটনায় পাকিস্তানের নাম উঠে এসেছে তা ভিত্তিহীন। তারা প্রমাণ দিলেই কেবল আমরা তদন্তে নামব।

বোর্ডের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা জানান, সাম্প্রতিক সময়ে ফিক্সিংয়ের সঙ্গে যে পাকিস্তান জড়িত এর কোনো প্রমাণ এখনও হাজির করতে পারেনি আলজাজিরা। মধ্যপ্রাচ্যের প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যমটির কাছে আমরা প্রমাণ চাই। তারা ভিডিও ফুটেজ দেখাতে পারলেই আমরা তদন্ত শুরু করব। আইসিসি ও আমাদের দুর্নীতিবিরোধী ইউনিট সেটি যাচাই করে দেখবে।

পিএসএলে স্পট ফিক্সিংয়ে জড়িত থাকার দায়ে নাসির জামশেদকে ১০ বছর নিষিদ্ধ করেছিল পিসিবি। নির্দোষ প্রমাণে নিরপেক্ষ আদালতে আবেদন করেছিলেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। তবু শেষরক্ষা হয়নি তার। গতকাল সেই শাস্তি বহাল রেখেছেন দুর্নীতিবিরোধী ট্রাইব্যুনাল। একই দিনে এমন দাবি তুলেছে পিসিবি।



মন্তব্য চালু নেই