মেইন ম্যেনু

উইন্ডিজ-দ.আফ্রিকা ম্যাচ পরিত্যক্ত

দ্বাদশ বিশ্বকাপের ১৫তম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখি হয় উইন্ডিজ। তবে ৭.৩ ওভার শেষ হতেই নেমে পড়ে ঝুম বৃষ্টি। নির্ধারিত সময়ে বৃষ্টি না থামায় এবং আউট ফিল্ড খেলার অযোগ্য হওয়ায় ম্যাচ পরিত্যাক্ত ঘোষণা করা হয়। ফলে উভয় দলই পয়েন্ট ভাগাভাগি করে নিয়েছে।

সোমবার (১০ জুন) সাউদ্যাম্পটনে ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন উইন্ডিজ অধিনায়ক জেসন হোল্ডার। ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ক্যারিবীয় বোলারদের তোপের মুখে পড়ে দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটসম্যানরা। দলীয় ১১ রানে শেল্ডন কটরেলের বলে ক্রিস গেইলকে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন ওপেনার হাশিম আমলা। স্লিপে দাঁড়িয়ে ক্যাচটি লুফে নিয়ে দেশের ইতিহাসের সবচেয়ে বেশি ক্যাচ নেয়ার রেকর্ড গড়েছেন গেইল। ছাড়িয়ে গেছেন সাবেক ক্যারিবীয় কিংবদন্তি কার্ল হুপারকে।

ওয়ান ডাউনে নেমে মোটেও সুবিধা করতে পারেননি এইডেন মার্করাম। শুরুর ধাক্কা কাটিয়ে ওঠার আগেই শেলডন কটরেলের বলে শাই হোপের তালুবন্দি হয়ে সাজঘরে ফেরেন তিনি। পরের ওভারেই বৃষ্টি শুরু হলে খেলা বন্ধ হয়ে যায়। তার আগে দুই উইকেট হারিয়ে স্কোর বোর্ডে ২৯ রান জমা করে দক্ষিণ আফ্রিকা।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পাওয়া হাঁটুর চোটের কারণে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে খেলতে পারছেন না মারকুটে অলরাউন্ডার রাসেল। তার পরিবর্তে সুযোগ পেয়েছেন ডানহাতি পেসার কেমার রোচ।

এবারের বিশ্বকাপে এখনও পর্যন্ত জয় পায়নি দক্ষিণ আফ্রিকা। টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচ দিয়ে তাদের হারের শুরু। স্বাগতিক ইংল্যান্ডের কাছে ১০৪ রানে হারের পর হেরেই চলেছে প্রোটিয়ারা। হারের বৃত্তে যেন আটকে গেছে অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিসের দল। ব্যাটিং ভালো করেও হার মেনেছে টাইগারদের কাছে। আর ভারতের কাছে তো একরকম পাত্তাই পায়নি তারা।

টানা তিন ম্যাচ হেরে দক্ষিণ আফ্রিকা আছে ক্রিকেট দুনিয়ার সব চেয়ে মর্যাদাকর আসর থেকে ছিটকে যাওয়ার শঙ্কায়। আজ সোমবার সাউদ্যাম্পটনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে যে করেই হোক জয় চায় আফ্রিকানরা। এবারের আসরে প্রথম জয় পেতে মরিয়া হয়ে মাঠে নামবে প্লেসিরা।

পাকিস্তানের বিপক্ষে জয়ের পর ক্যারিবিয়ানরা হেরে গেছে অস্ট্রেলিয়ার কাছে। আত্মবিশ্বাসটা ঝালিয়ে নিতে জয় চাই জেসন হোল্ডারদেরও। টুর্নামেন্টে টিকে থাকতে হলে জিততে যে হচ্ছেই!

দক্ষিণ আফ্রিকা একাদশ: ফাফ ডু প্লেসিস (অধিনায়ক), হাশিম আমলা, কুইন্টন ডি কক (উইকেটরক্ষক), এইডেন মার্করাম, রসি ফন ডার ডুসেন, ডেভিড মিলার, আন্দিলে ফিকোয়াও, ক্রিস মরিস, কাগিসো রাবাদা, ইমরান তাহির ও বিওরেন হ্যান্ডরিক্স।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ একাদশ: জেসন হোল্ডার (অধিনায়ক), ক্রিস গেইল, ড্যারেন ব্রাভো, শাই হোপ (উইকেটরক্ষক), নিকোলাস পুরান, শিমরন হেটমায়ার, কার্লোস ব্রাথওয়েট, অ্যাশলে নার্স, কেমার রোচ, শেলডন কটরেল ও ওশানে থমাস।



মন্তব্য চালু নেই