মেইন ম্যেনু

এক দুর্ঘটনা কেড়ে নিল একই পরিবারের ৯ জনের প্রাণ

যুক্তরাষ্ট্রের মিসৌরি অঙ্গরাজ্যে পর্যটকবাহী নৌকাডুবিতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭ জনে। গতকাল দুর্ঘটনার পর ১১ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছিল। মিসৌরির গভর্নর জানিয়েছেন, ওই দুর্ঘটনায় যে ১৭ জনের প্রাণ গেছে তাদের মধ্যে ৯ জনই একই পরিবারের।

গভর্নর মাইকেল প্যারসন জানিয়েছেন, ১১ সদস্যের পরিবারের ৯ জনকে হারানো এক নারীর সঙ্গে কথা হয়েছে তার।

স্থানীয় গণমাধ্যমকে ওই নারী বলেছেন, ওই নৌকার যিনি ক্যাপ্টেন ছিলেন তিনি যাত্রীদের লাইফ জ্যাকেট পড়তে মানা করেছিলেন।

পর্যটকদের পছন্দের টেবিল রক লেকে গতকাল ‘ডাক বোট’টি যখন উল্টে যায় তখন এতে ৩১ জন যাত্রী ছিলেন। নিহতের বয়স ১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে বলে জানা গেছে।

ফক্স৫৯ নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে নারী তার পরিবারের ৯ সদস্যকে হারিয়েছেন তার নাম টিয়া কোলম্যান। তিনি বলেছেন, আমি আমার সব সন্তান, স্বামী, শ্বশুড়, শাশুড়ি, আঙ্কেল, বোনের মতো ননদ, ভাগ্নিকে হারিয়েছে। আমি ঠিক আছি, কিন্তু এ অবস্থা সত্যিই কঠিন।

তিনি আরও বলেন,ক্যাপ্টেন আমাদের বলেছিল, লাইফ জ্যাকেট নিয়ে ভাবার কোনো দরকার নেই, কারোরই ওটা পরার দরকার হবে না। সে কারণে কেউই আর লাইফ জ্যাকেট পরেনি। আর যখন সবাই বুঝতে পারলো লাইফ জ্যাকেট পরা দরকার, ততক্ষণে অনেক দেরি হয়ে গেছে।

ওই দুর্ঘটনার পর নৌকার ৩১ যাত্রীর যে ক’জন বাঁচতে পেরেছেন ক্যাপ্টেন তাদের মধ্যে একজন। তিনি এখন একটি হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

ডুবে যাওয়া নৌকাটি যে প্রতিষ্ঠানের ওই প্রতিষ্ঠানের মালিক জিম প্যাটিনসন বলেছেন, নৌকাটি আকস্মিকভাবে ঝড়ের কবলে পড়ে। আবহাওয়ার যে অবস্থা তখন হয়েছিল তাতে নৌকাটির পানিতে থাকার কথাই ছিল না।

এই প্রতিষ্ঠানটি ৪৭ বছর ধরে এই লেকে নৌকা চালিয়ে আসছে এবং তাদের দুর্ঘটনার কোনো ইতিহাস নেই। ক্যাপ্টেনেরও রয়েছে ১৬ বছরের কাজের অভিজ্ঞতা।

যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিসের তথ্য অনুযায়ী, দুর্ঘটনার সময় ঘটনাস্থলে বাতাসের গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ১০৪ কিলোমিটার। বিবিসি



মন্তব্য চালু নেই