মেইন ম্যেনু

এক পায়ে ১০ কিমি দৌড় যুবকের, এক পায়েই দৌড়শেষে অসাধারণ নাচ!

এক পা নিয়ে তিনি দুই পায়ের অধিকারীদের সঙ্গে লড়াই চালালেন। লড়াইয়ের মাঝে তিনি দুই-একবার হোঁচট খেলেন ঠিকই। কিন্তু হাল ছাড়লেন না। একেবারে পায়ে পা মিলিয়ে ১০ কিমি ম্যারাথন ছুটলেন। এক পা নিয়ে ১০ কিমি দৌড়। ব্যাপারটা অবিশ্বাস্য মনে হতেই পারে। কিন্তু বাস্তবে এমন অসাধ্য সাধন করে দেখালেন পুণের এক যুবক।

যদিও তাঁর নাম জানা যায়নি। তবে সেই যুবকের একটা নাচের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, ১০ কিমির ম্যারাথন শেষ করার আনন্দে তিনি আনন্দে আত্মহারা হয়ে নাচছেন। এক পায়ে তাঁর সেই নাচের স্টেপ সত্যিই দেখার মতো।

জীবনে অনেক সময়ই অনেক কিছুতে আমাদের অনেক না পাওয়ার আক্ষেপ থাকে। অনেক সময়ই আমরা কোনও কাজে এগোনোর আগে ভয়ে ভুগি। ভয়, সেটাও এক ধরণের অসুখ। অনেক সময় আত্মবিশ্বাসের অভাবও হয়। মনের মধ্যে খচখচানি থাকে, আদৌ সংশ্লিষ্ট কাজটা আমি বা আমরা করতে পারব তো! না পারলে সমাজের কাছ থেকে টিটকিরি শোনার একটা ভয়ও কাজ করে। সব শেষে হয়তো দেখা যায়, আমরা সেই কাজটা করার জন্য এক পা এগিয়েও তিন পা পিছিয়ে আসি। স্রেফ ভয়জড়ানো মনের জন্য অনেক কাজ করে হয়ে ওঠা হয় না।

কিন্তু পুণের ম্যারাথনে অংশ নেওয়া সেই যুবক যেন ভয় ও সংশয়কে জয় করানোর পাঠ পড়িয়ে গেলেন। শারীরিক প্রতিবন্ধকতাকে জয় করে প্রমাণ করে গেলেন, মনে জোরটাই সব। ওটা থাকলেই জীবনের সব প্রতিকূলতার বিরুদ্ধে নেচে ওঠা যায়।

২১ কিমি, ১০ কিমি ও ছয় কিমি ম্যারাথনের আয়োজন করেছিলেন উদ্যোক্তারা। প্রায় ২৫০০ প্রতিযোগী অংশ নিয়েছিলেন তিনটি বিভাগের ম্যারাথনে। মূলত কেন্দ্রীয় সরকারের স্বচ্ছ ভারত অভিযান- প্রজেক্ট নিয়ে সচেতনতা বাড়াতেই এই ম্যারাথন আয়োজন করা হয়েছিল। ম্যারাথন শেষে নীল জার্সি পরে জনৈক যুবককে দেদার নাচতে দেখা যায়। আয়োজকদের সঙ্গে উপস্থিত দর্শকরাও তাঁর শারীরিক ভারসাম্য দেখে চমকে ওঠেন। সূত্র: জি নিউজ



মন্তব্য চালু নেই