মেইন ম্যেনু

এক সপ্তাহ ধরে জ্বর-কাশিতে ভুগছেন খালেদা : বিএনপি

কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া গত এক সপ্তাহ ধরে জ্বর এবং কাশিতে ভুগছেন বলে দলটির নেতারা জানিয়েছেন। অনতিবিলম্বে খালেদার সুচিকিৎসার দাবি জানান তারা।

সোমবার রাতে বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে জরুরি সংবাদ সম্মেলনে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম অালমগীর বলেন, ১০ দিন পর অাজ খালেদা জিয়ার পরিবারের সদস্যরা কারাগারে তার সঙ্গে দেখা করার অনুমতি পান। সন্ধার পর দেখা করে তারা জানিয়েছেন, আগের চেয়ে তিনি অনেক বেশি অসুস্থ। তার হাত ভারী হয়ে যাচ্ছে এবং অবশ হয়ে যাচ্ছে।

মহাসচিব বলেন, অত্যন্ত দুঃখের সাথে জানাচ্ছি তার শারীরিক অবস্থা বেশ খারাপের দিকে। এই ধরনের জাতীয় নেতার চিকিৎসায় সরকারের অবহেলা মেনে নেয়ে যায় না।

মির্জা ফখরুল বলেন, সরকারের আসল উদ্দেশ্য কী? কেন তারা খালেদার সুচিকিৎসার জন্য যেতে দিচ্ছে না। সরকারের উদ্দেশ্য নিয়ে আমাদের সন্দেহ আছে। খালেদার চিকিৎসার দায়িত্ব সরকারের। তার কিছু হলে সরকারকে দায় নিতে হবে।

এ সময় দলের ভাইস চেয়ারম্যান চিকিৎসক নেতা এ জেড এম জাহিদ হোসেন বলেন, খালেদা জিয়ার পরিবারের সদস্যরা আজ সন্ধা ৭টা ১৫ মিনিটে দেখা করে আমাকে ম্যাডামের স্বাস্থ্যের কথা জানিয়েছেন। ম্যাডাম গত সাতদিন ধরে জ্বরে আক্রান্ত। প্রতিদিন রাতে জ্বর আসছে। কাঁপুনি দিয়ে জ্বর আসছে। ডান চোখ অনেক লাল হয়ে গেছে, ফুলে গেছে।

ঘাড়ের ব্যথা বাম হাতের তালু পর্যন্ত নেমে এসেছে। হাত দিয়ে শক্ত কিছু ধরলে ঝিনঝিন করে। কোমরের ব্যথা পায়ে নেমে এসেছে। কারও হেল্প ছাড়া ওনার ব্যক্তিগত কর্মকাণ্ড করা সম্ভব নয়।

সংবাদ সম্মেলনে বেগম খালেদা জিয়ার দুই ব্যক্তিগত চিকিৎসক সিরাজুল উদ্দিন আহমেদ এবং আব্দুল কুদ্দুস বক্তব্য দেন। তারা চেয়ারপারসনের স্বাস্থ্য নিয়ে অাশঙ্কা প্রকাশ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ অাহমদ, ড. আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান অাব্দুল আউয়াল মিন্টু, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শাইরুল কবীর খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।



মন্তব্য চালু নেই