মেইন ম্যেনু

কাবুলে হোটেলে হামলায় ১৪ বিদেশি নিহত

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে বন্দুকধারীদের হামলায় ১৮ জন নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে ১৪ জনই বিদেশি নাগরিক এবং চারজন আফগান নাগরিক। খবর বিবিসি।

তবে কিছু গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। স্থানীয় সময় শনিবার রাত ৯টার দিকে এই হামলা চালানো হয়। ঘটনাস্থলে বন্দুকধারীদের সঙ্গে বিশেষ বাহিনীর প্রায় ১২ ঘণ্টা লড়াই চলে। দীর্ঘ লড়াইয়ের পর বন্দুকধারীদের প্রতিহত করে বিলাসবহুল ওই হোটেলের নিয়ন্ত্রণ নেয় নিরাপত্তা বাহিনী।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জানিয়েছে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে লড়াইয়ে হামলাকারীরা নিহত হয়েছে। প্রায় ১৬০ জন বেশি জিম্মিকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, চার বেসামরিকসহ ১০ জন ওই হামলায় আহত হয়েছে। কাবুলের পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, হোটেলে হামলার ঘটনায় ইউক্রেনের নয় নাগরিক, এক জার্মানি, গ্রিসের একজন এবং কাজাখস্তানের একজন নাগরিকের নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। তবে এখনও আরও দু’জনের পরিচয় জানা যায়নি।

বন্দুকধারীরা শনিবার রাতে হোটেলটিতে অতর্কিত হামলা চালায়। তারা হোটেলে থাকা অতিথি এবং কর্মচারীদের ওপর গুলি বর্ষণ করে এবং গ্রেনেড দিয়ে হামলা চালায়।

দেশটি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নাজিব দানিশ জানান, স্পেশাল ফোর্স পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছে। হামলাকারীরা হোটেলে যে কয়েকজনকে জিম্মি করে রেখেছিল তাদের উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। বন্দুকধারীদের মধ্যে আত্মঘাতী হামলাকারীও ছিল।

স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, ওই হোটেলে প্রাদেশিক কর্মকর্তাদের অংশগ্রহণে একটি আইটি কনফারেন্স হওয়ার কথা ছিল।



মন্তব্য চালু নেই