মেইন ম্যেনু

কুবির কলা অনুষদের আয়োজনে আন্তর্জাতিক সাহিত্য সম্মেলন মঙ্গলবার

ইমদাদুল হক মিরন, কুবি প্রতিনিধি : কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) কলা ও মানবিক অনুষদের আয়োজনে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক সাহিত্য সম্মেলন ২০১৯। আগামীকাল (মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল) অনুষদ ভবনের হলরুমে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ও মানবিক অনুষদের উদ্যোগ এবং বাংলা ও ইংরেজি বিভাগের যৌথ ব্যবস্থাপনায় অনুষদের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে এই আন্তর্জাতিক সম্মেলনটি।

অনুষ্ঠানসূচিতে মঙ্গলবার সকাল ৯:৩০ টায় সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন খ্যাতিমান রবীন্দ্র গবেষক রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ এর উপাচার্য প্রফেসর ড. বিশ্বজিৎ ঘোষ।

সম্মেলনের আহবায়ক এবং কলা মানবিক অনুষদের ডিন ড. জি. এম. মনিরুজ্জামানের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরী। সম্মানিত অতিথি হিসেবে থাকবেন ভারতের আসাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রফেসর ড. তপোধীর ভট্টাচার্য। এছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগীয় প্রধান ও শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্থিত থাকবেন সম্মেলনে।

দিনব্যাপী তিনটি অধিবেশনের মাধ্যমে সম্মেলনের সেমিনার পর্ব অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম অধিবেশনে ‘অন্য রবীন্দ্রনাথ’ প্রসঙ্গে প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য প্রফেসর ড. বিশ্বজিৎ ঘোষ। ‘উইলিয়াম শেক্সপিয়র’ বিষয়ক পরবর্তী অধিবেশনে প্রবন্ধালোচনা রাখবেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক ড. শফি আহমেদ। সর্বশেষ অধিবেশনে ‘সাহিত্যতত্ত্ব’ শীর্ষক প্রবন্ধ নিয়ে আসবেন ভারতের আসাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রফেসর ড. তপোধীর ভট্টাচার্য।

তিনটি অধিবেশনে সভাপতিত্ব করবেন যথাক্রমে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ও মানবিক অনুষদের ডিন ড. জি. এম. মনিরুজ্জামান, ইংরেজি বিভাগের প্রধান মো: আলী রেজওয়ান তালুকদার এবং বাংলা বিভাগের প্রধান মুহাম্মদ শামসুজ্জামান মিলকী।

সম্মেলন প্রসঙ্গে আহবায়ক কলা ও মানবিক অনুষদের ডিন ড. জি. এম. মনিরুজ্জামান জানান, ‘শিক্ষার্থীদের জ্ঞানার্জন আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করার লক্ষ্যেই আমাদের এই প্রচেষ্টা। আশা করছি সকলের সহযোগিতায় সম্মেলনটি সার্থক ও সফল হবে।’

উল্লেখ্য, সম্মেলনের সেমিনার পর্ব শেষে বাংলা বিভাগ ও ইংরেজি বিভাগের যৌথ প্রযোজনায় এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা আয়োজিত হবে। এতে আবৃত্তি, নাচ, গান এবং নাটিকা প্রদর্শিত হওয়ার কথা রয়েছে।



মন্তব্য চালু নেই