মেইন ম্যেনু

‘কোনো দল নির্বাচনে না এলে তাদের সঙ্গে বসার সময় নেই’

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা বলেছেন, কোন দল নির্বাচনে আসবে আর কোন দল নির্বাচনে আসবে না এটা তাদের নিজস্ব সিদ্ধান্তের ব্যাপার। কোনো দল নির্বাচনে না আসলে আলাদা করে তাদের সঙ্গে আর বসার সময় নেই।

তিনি বলেন, তফসিল ঘোষণার পর বৈঠকে বসে সিদ্ধান্ত হবে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হবে কি না। আগে বা পরে নয়, সঠিক সময়ে আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে মঙ্গলবার বিকেলে দিনাজপুরে জেলা প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে মতবিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে সিইসি এসব কথা বলেন।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন, প্রযুক্তির সঙ্গে এগিয়ে যাওয়ার জন্য আমরা নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করতে চাই। এক্ষেত্রে আইনের পরিবর্তনের দরকার। সেই আইন পরিবর্তনের জন্য আমরা আইন মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠিয়েছি। সেই প্রস্তাব এখনো আইনে পরিণত হয়নি। যদি সেটা আইনে পরিণত হয় তাহলে আমরা সীমিত আকারে ইভিএম ব্যবহার করবো।

ইভিএম ব্যবহারে বিএনপির আপত্তি প্রসঙ্গে নূরুল হুদা বলেন, দেশের জনগণ ও সব দল চাইলে আগামী নির্বাচনে সীমিত আকারে ইভিএম ব্যবহার করা হবে।

নূরুল হুদা বলেন, সঠিক সময়ে দেশে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। কমিশনে এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে আগামী ৩১ অক্টোবর থেকে আগামী বছরের জানুয়ারি মাসের ২৮ তারিখের মধ্যেই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

নির্বাচন কমিশনের প্রতি কোনো কোনো রাজনৈতিক দলের অনাস্থার বিষয়ে সিইসি বলেন, তাদের রাজনৈতিক স্বাধীনতা আছে, এটা তারা বলতেই পারে, এটা তাদের ব্যাপার।

নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণের বিষয়ে তিনি বলেন, আমরা চাই সব দলেই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করুক। কিন্তু কেউ নির্বাচনে না আসলে আলাদা করে কোনো দলের সঙ্গে আর বসার কোনো সুযোগ ও সময় কোনোটাই নেই।



মন্তব্য চালু নেই