মেইন ম্যেনু

ক্রিকেট নয় ফুটবলের তালিম নিচ্ছে সাকিব-কন্যা!

বাবা বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। ক্রিকেটের তিন সংস্করণে সাকিব আল হাসান এক নম্বর অলরাউন্ডার। বিখ্যাত বাবার মেয়ে আলাইনা হাসান অব্রি। এই এতটুকু বয়সেই পেয়ে গেছেন তারকা খ্যাতি। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে তাঁর একটা ছবি পোষ্ট হওয়ার সঙ্গে লাইক-কমেন্টের বন্যা বয়ে যায়।

সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) মেয়েকে নিয়ে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে এসেছিলেন সাকিব। ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে আঙুল ফাটার পর থেকেই দলের বাইরে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজেও খেলতে পারবেন না। তাই অলস সময় কাটাতে মেয়েকে নিয়ে এসেছিলেন মাঠে। বাবা-মেয়ে ক্রিকেট নয়, ফুটবল খেলেছে।

সাকিব ছোটবেলায় ফুটবলটাও খুব ভালো খেলতেন। তখন তাঁর ফুটবলই ছিল ধ্যানজ্ঞান। সাকিবের বাবাও চাইতেন তার ছেলে ফুটবলেই মন দিক। কিন্তু সময়ের স্রোতে সাকিব ফুটবলার না হয়ে ক্রিকেটার হয়েছেন।

তা হলে হবে কী! সাকিবের রক্তেই যে মিশে রয়েছে ফুটবল। সোমবার মেয়েকে ফুটবলের তালিমই দিলেন শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে। ফুটবল নিয়ে কারিকুরি করে দেখালেন ছোট্ট অব্রিকে। আর মেয়েও সেটা শিখতে সময় নিলেন না! বাঁ-পা দিয়ে সে বলে জোরালো শটও করেছে।

সাম্প্রতিক সময়ে ঘরের মাঠে সময়টা ভালো যাচ্ছে না বাংলাদেশ দলের। ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনাল হারতে হয়েছে। এরপর টেস্ট সিরিজও শ্রীলঙ্কার কাছে ১-০ তে খোয়াতে হয়েছে। মাঠের বাইরে থাকা সাকিবকে প্রচণ্ড মিস করছে বাংলাদেশ।

মাঠের বাইরে থাকাটা একজন পেশাদার ক্রিকেটারের জন্য কতটা কঠিন সাকিব সেটি বলেছেনও, ‘পেশাদার ক্রিকেটার হিসেবে মাঠে থাকতে না পারলে খারাপ লাগে। এটার ওপর আমার হাত নেই যে কিছু করতে পারব। হয়তো এটাই নিয়তিতে ছিল। কিছু কিছু ব্যাপারে কি হলে কি হতো এগুলো চিন্তা করা যাবে না। ভাগ্যের ওপর ছেড়ে দিতে হয়। তবে একজন খেলোয়াড় যদি খেলতে না পারে সে অনুভূতি বলে বোঝানো যাবে না।’



মন্তব্য চালু নেই