মেইন ম্যেনু

গণমাধ্যম নিয়ন্ত্রণ করে সরকার ধুলা দিয়েছে : ফখরুল

খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে গণমাধ্যম নিয়ন্ত্রণ করে সরকার জনগণের চোখে ধুলা দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, সরকার তাদের মতো করে গণমাধ্যম নিয়ন্ত্রণ করছে।

তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন সুষ্ঠু নির্বাচন পরিচালনা করতে ব্যর্থ হয়েছে। এই সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠান সম্ভব নয়। নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন করতে হবে। আজকে খুলনায় সেনা মোতায়েন থাকলে এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হতো না। জয় পরাজয় আলাদা কথা কিন্ত প্রতিপক্ষ দলের এজেন্টদের বের করে দেয়া হবে, এটা নির্বাচন হতে পারে না। মঙ্গলবার রাতে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান অফিসে দলের জ্যেষ্ঠ নেতাদের বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, এই সরকার পুলিশকে বিএনপির প্রতিপক্ষ হিসেবে দাঁড় করিয়েছে। ‘বিএনপি কারচুপির ভাঙা রেকর্ড বাজাচ্ছে’ ক্ষমতাসীন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের জবাবে বিএনপি মহাসচিব বলেন, আমরা এসব কথার জবাব দিতে চাই না, তারা উঠপাখির মতো মুখ গুঁজে আছে।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখে কিসের নির্বাচন? নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন হতে হবে। সরকার প্রধানকে পদত্যাগ করতে হবে। নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন করতে হবে। পার্লামেন্ট ভেঙে দিতে হবে নিয়ম অনুযায়ী। লেভেল প্লেইং ফিল্ড তৈরি করতে হবে। সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে বেসরকারি টিভি চ্যানেল এটিএন নিউজে প্রচারিত একটি প্রতিবেদন প্রজেক্টরের মাধ্যমে পর্যালোচনা করা হয়। প্রতিবেদনে খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের অনিয়ম তুলে ধরা হয়। সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল আউয়াল মিন্টু, বরকত উল্লাহ বুলু উপস্থিত ছিলেন।



মন্তব্য চালু নেই