মেইন ম্যেনু

গাছের ডালেই সন্তান জন্ম দিলেন নারী!

আফ্রিকার দক্ষিণাঞ্চলে মার্চ মাসে আইডাই নামের ভয়ঙ্কর ঘুর্ণিঝড় আঘাত হানে। ঝড়ের পরপরই আফ্রিকান অন্যান্য দেশের মতো বন্যা শুরু হয় মোজাম্বিকেও। তলিয়ে যেতে থাকে মানুষের ঘর-বাড়ি, ক্ষেত-খামার।

এমন পরিস্থিতিতে এমিলিয়া নামের এক গর্ভবতী নারী তার দুই বছরের সন্তানকে নিয়ে ছুটতে থাকেন আশ্রয়ের খোঁজে। চারিদিকে পানি থাকায় এমিলিয়া তার সন্তানকে নিয়ে একটি আম গাছে আশ্রয় নেন। কিন্তু গাছে চড়ার কিছুক্ষণ পরই এমিলিয়ার প্রসব বেদনা শুরু হয়।

এ সময় নিজের দুই বছরের সন্তান ছাড়া তাকে সাহায্য করার জন্য আশেপাশে কেউ ছিল না। তীব্র যন্ত্রণায় ছটফট করতে করতে কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই এমিলিয়া গাছের ডালেই একটি মেয়ের জন্ম দেন। সদ্যজাত সন্তান ও দুই বছরের শিশু সন্তানকে নিয়ে এমিলিয়া দুই দিন গাছের ডালেই অবস্থান করেন। এরপর প্রতিবেশীরা তাদের উদ্ধার করেন।

সম্প্রতি সন্তান প্রসবের ওই ঘটনা উল্লেখ করে এমিলিয়া ইউনাইটেড ন্যাশনস চিল্ড্রেন এজেন্সী ইউনিসেফকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, বন্যার পানি হঠাৎ করেই আমার বাড়িতে প্রবেশ করে। আশ্রয়ের জন্য গাছে ওঠা ছাড়া আমার কোনও উপায় ছিল না। ছেলেকে নিয়ে আমি সম্পূর্ণ একা ছিলাম। কিন্তু গাছে ওঠার পর পরই আমার ব্যথা শুরু হয়। চারপাশে আমাকে সাহায্যের জন্য কেউ ছিল না।

তিনি আরও বলেন, গাছের মাথাতেই আমার মেয়ে সারার জন্ম হয়। সারা আর ছেলেকে নিয়ে আমি গাছের ডালেই বসে ছিলাম কোনও উপায় না পেয়ে।

বর্তমানে এমিলিয়া তার শিশুদের নিয়ে ডোম্বির একটি উন্নত আশ্রয়কেন্দ্রে অবস্থান করছেন। জানা গেছে, গাছের ডালে সন্তান জন্ম দেয়ার ঘটনা এটাই প্রথম নয়। মোজাম্বিকের দক্ষিণাঞ্চলে ২০ বছর আগে বন্যার সময়ও গাছের ডালে একটি সন্তানের জন্ম দিয়েছিলেন এক নারী।

উল্লেখ্য, আইডাই ঘূর্ণিঝড় ও বন্যার পানিতে দক্ষিণ আফ্রিকায় ৭০০ এর বেশি মানুষ মারা গেছে।বসতবাড়ি ধ্বংস হয়েছে ৫০ হাজারেরও উপরে।



মন্তব্য চালু নেই