মেইন ম্যেনু

গায়ে হলুদ অনুষ্ঠানে বাবাকে জড়িয়ে কাঁদলেন এই নায়িকা

আর দিন কয়েক পরেই নিখিল জৈনকে বিয়ে করতে চলেছেন অভিনেত্রী তথা সদ্য নির্বাচিত তৃণমূল সাংসদ নুসরাত জাহান। শুক্রবার তাঁর কলকাতার বাড়িতে ছিল গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান। সে অনুষ্ঠানেই বাবাকে জড়িয়ে ধরে কেঁদে ফেললেন নুসরাত। সোশ্যাল মিডিয়ায় সে ছবি শেয়ারও করেছেন অভিনেত্রী।

ছবির ক্যাপশনে নুসরাত লিখেছেন, ‘মনুষ্যত্ব তোমার কাছ থেকে শিখেছি। আমার আনন্দের জন্য সব দায়িত্ব নিয়েছ। তোমার মতাদর্শকে কখনও অসম্মান করব না। তোমাকে ভালবাসি বাবা। আমি চাই সব মেয়েরাই তোমার মতো বাবাকে পান। হ্যাপি ফাদার্স ডে।’

গালে, কপালে হলু। লাল ওড়নায় জরির ফুল। মানানসই লাল পোশাক। বেল ফুলের মালা, সোনার গয়নায় গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে সেজেছিলেন নুসরাত। সেই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন তাঁর প্রিয় বন্ধু মিমি চক্রবর্তী। বুধবার নুসরাতকে আইবুড়োভাতও খাইয়েছিলেন তিনি।

আগামী ১৯ জুন তুরস্কের বোদরুমে বিয়ে করছেন নুসরাত জাহান এবং নিখিল জৈন। হবু বর-কনে সেখানে যাচ্ছেন ১৫ জুন রাতে। বিয়ের আগে নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন হয়েছে বোদরুমে। ১৭ তারিখে ইয়ট পার্টি, ১৮য় মেহেন্দি ও সঙ্গীত। বিয়ের দিন সকালেও হলদি রয়েছে। বিয়ের পরে রিসেপশন। এতেই শেষ নয়, ২০ জুন হবে হোয়াইট ওয়েডিং। দেশে ফিরে ২৫ জুনের পরে আইনি মতে বিয়ে সারবেন নুসরাত-নিখিল।

বিয়েতে নুসরাত পরছেন ডিজ়াইনার সব্যসাচী মুখোপাধ্যায়ের লেহঙ্গা। নিখিলও সব্যসাচীর পোশাক পরবেন। এক-একটি অনুষ্ঠানের জন্য থিম অনুযায়ী পোশাক বেছেছেন নায়িকা। ইয়ট পার্টিতে সামার ফাঙ্ক। নায়িকার মেহেন্দির থিম বোহেমিয়ান। সেখানেও মানানসই ডিজ়াইনার ওয়্যার। সঙ্গীতের জন্য ইন্দো-ওয়ের্স্টান পোশাক বেছেছেন নুসরাত। বিয়ের পরে রাতের পার্টিতে নায়িকা আবার ফিরে যাবেন ওয়েস্টার্ন গ্ল্যামারাস পোশাকে। হোয়াইট ওয়েডিংয়ের জন্য নুসরাত বেছেছেন মিন্ট গ্রিন এবং সাদার মিশেলে ড্রেস।

প্রতিটি অনুষ্ঠানেই খাওয়াদাওয়ার বিস্তারিত আয়োজন। বিয়ের দিন মেনুতে থাকছে স্থানীয় কুইজ়িন এবং ভারতীয় খাবার। বিয়ের পরে ইউরোপের কোনও জায়গায় মধুচন্দ্রিমায় যাবেন নব দম্পতি।



মন্তব্য চালু নেই