মেইন ম্যেনু

গ্রীন লাইফে ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যু, ২ দিনে বিল ১ লাখ ৩০ হাজার

ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে গত রোববার রহিমা বেগম নামে এক নারী রাজধানীর গ্রীন লাইফ হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানে দুদিন চিকিৎসার পর মঙ্গলবার তিনি মারা যান।

মৃত্যুর পর এই দুই দিনে রহিমার চিকিৎসা বিল দেখানো হয়েছে এক লাখ ৩০ হাজার ৭০৯ টাকা। এর মধ্যে শুধু ওষুধের পেছনেই খরচ হয়েছে ৬৮ হাজার ৯৭ টাকা।

এ ছাড়া এই সময়ের মধ্যে দুইজন চিকিৎসক মোট তিন বার রোগীকে দেখেছেন (অধ্যাপক ফখরুন্নেসা দুই বার ও অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী হোসাইন এক বার)। এজন্য বিল করা হয়েছে সাড়ে সাত হাজার টাকা।

এ ছাড়া রয়েছে আইসিইউ, এইচডিইউ ইত্যাদি ও কয়েকটি টেস্টের বিল। রোগী মারা যাওয়ার পর তার স্বজনদের হাতে এই দীর্ঘ বিলের তালিকা তুলে দেওয়া হয়।

এদিকে মঙ্গলবার সকালে গ্রীন লাইফ হাসপাতালে অভিযান চালায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। সংস্থাটির এক কর্মকর্তা সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, গ্রীন লাইফের বিরুদ্ধে ডেঙ্গু টেস্টে সরকার নির্ধারিত ফির বেশি টাকা নেওয়ার প্রমাণ পেয়েছেন তারা।

নির্ধারিত মূল্যের বেশি অর্থ নেওয়ায় বুধবার শুনানির জন্য গ্রীন লাইফ কর্তৃপক্ষকে ডাকা হয়েছে।

এর আগে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে গত শুক্রবার রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স বিভাগের শিক্ষার্থী ফিরোজ কবির স্বাধীন চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে মারা যান। এই হাসপাতালে মাত্র ২২ ঘণ্টা চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। কিন্তু এই সময়ের মধ্যে হাসপাতালের বিল আসে এক লাখ ৮৬ হাজার টাকা। এত টাকা বিল আসার বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তা নিয়ে শুরু হয় ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা।



মন্তব্য চালু নেই