মেইন ম্যেনু

ঘুষ ঠেকাতে অফিসের দেয়ালে দেয়ালে বোর্ড

লাল অক্ষরে লেখা আছে, ‘ঘুষ বোর্ড’! আরও লেখা আছে, ‘এই অফিসে যদি কাউকে ঘুষ দিয়ে থাকেন, তবে এই বোর্ডে বিবরণ লিখে যাবেন’।

ঘুষ নিয়ে এমনি এক ব্যতিক্রমি নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলা প্রশাসনের নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুহুল আমিন।

যা এই উপজেলার সরকারি অফিসের এই প্রথম উদ্যোগ। এছাড়া উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তার কার্যালয়ে লাগানো হয়েছে দুর্নীতিমুক্ত বলে স্টিকার।

উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তার কার্যালয়ের ঢোকার সময় দেয়ালে ঘুষ বোর্ড ও তার অফিসের দরজায় দুর্নীতিমুক্ত লেখা স্টিকার তথা একজন উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তার ঘুষের ব্যাপারে এমন উদ্যোগকে স্বাগত জানাচ্ছে নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিসহ সব স্থরের জনসাধারণ।

সম্প্রতি উপজেলা নির্বাহী অফিসে সেবা গ্রহণকারীর নিকট কর্মচারীর ঘুষ চাওয়ার ঘটনাটি বেশ আলোচিত হয়েছিল। তাই ঘুষের প্রবণতা ঠেকাতে এবার অভিনব উদ্যোগ নিয়েছে বলে জানান ইউএনও রুহুল আমিন।

তিনি জানান, ঘুষ দেয়া ও নেয়া দুটোই সমান অপরাধ। ঘুষের ব্যাপারে কখনও কাউকে আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়নি। জনগণের সেবা করাই হল আমাদের দায়িত্ব। তাদের সমস্যা সমাধান ও অন্যান্য সেবা প্রদান করার লক্ষ্যে আমাদের এই অফিস। আমি চাই সম্পূর্ণ ঘুষবিহীন সেবা প্রদান করা হোক আমার অফিসে। এ ব্যাপারে কোনো ছাড় দেয়া হবে না।

এদিকে সোমবার বিকালে উপজেলা ভূমি অফিসের দেয়ালে লাগানো হয়েছে একি রকমের ঘুষ বোর্ড। এছাড়া মঙ্গলবার হাটহাজারী পৌরসভায় লাগানো হবে এসব বোর্ড। এভাবে ঘুষের বিরুদ্ধে তার (ইউএনও) কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।



মন্তব্য চালু নেই