মেইন ম্যেনু

‘জয় শ্রীরাম’ না বলায় আক্রান্ত শিক্ষকের পাশে মমতা

‘জয় শ্রীরাম’ বলতে না চাওয়ায় ট্রেন থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়া মাদ্রাসা শিক্ষক শাহরুখ হালদারের পাশে দাঁড়ালেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যের তরফে তাকে ৫০ হাজার টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে বলেও জানিয়ে দিয়েছেন মমতা।

গত বৃহস্পতিবার দুপুরে হুগলি যাওয়ার জন্য দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিং থেকে শিয়ালদাগামী লোকাল ট্রেন ধরেছিলেন শাহরুখ। ২৬ বছরের যুবক জানিয়েছেন, ট্রেনে আগাম কিছু লোকজন চিৎকার করছিলেন। পাশের কামরায় যে কোনও গন্ডগোল চলছে, তা বোঝা যাচ্ছিল। ‘হঠাৎই ওদের কয়েকজন আমার কামরাতেও চলে আসে।’ পোশাক, মাথায় টুপি ও দাড়ি দেখেই শাহরুখকে ‘ইচ্ছাকৃতভাবে চিহ্নিত’ করা হয়।

শাহরুখের অভিযোগ, ‘আমায় গালিগালাজ করা হয়। প্রতিবাদ করলে মারধর করে। ওরা আমায় ঘিরে নেয়, জয় শ্রীরাম স্লোগান দিতে বাধ্য করতে থাকে।’

তবে জয় শ্রীরাম স্লোগান দিতে চাননি মাদ্রাসা শিক্ষক। যার জেরে মারধর বেড়ে যায়। ট্রেন পার্ক সার্কাস স্টেশনে ঢোকার সময় কোনও রকমে পালানোর চেষ্টা করেন শাহরুখ। তবে ব্যর্থ হওয়ায় বেধড়ক মারধর করা হয় তাঁকে। এরপর চলন্ত ট্রেন থেকেই প্ল্যাটফর্মে ফেলে দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, লোকসভার পর থেকেই ‘জয় শ্রীরাম’ ইস্যুতে উত্তাল হয়েছে রাজ্য রাজনীতি। একাধিকবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ঘিরে ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি দেওয়া হয়েছে। যার জেরে একাধিকবার মেজাজও হারিয়েছেন মমতা।



মন্তব্য চালু নেই