মেইন ম্যেনু

ডাস্টবিনে বিড়ালের টানা হেঁচড়ায় কেঁদে উঠল নবজাতক

গাজীপুরে ডাস্টবিনে ফেলে যাওয়া নবজাতককে বিড়ালের কবল থেকে উদ্ধার করেছে এক পোশাক শ্রমিক দম্পতি। পরে কয়েক ঘণ্টা বয়সী শিশুটিকে তারা গাজীপুরে শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। উদ্ধার হওয়া নবজাতক মেয়ে শিশুটিকে ওই হাসপাতালে শিশু ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

রোববার দুপুরে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের তিনসড়ক এলাকার ঢাকা-গাজীপুর সড়কের পাশের ডাস্টবিন থেকে ওই নবজাতকটি উদ্ধার হয়।

শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক প্রণয় ভূষন দাস জানান, দুপুর সোয়া দুইটার দিকে তিনসড়ক এলাকায় স্প্যারো কারখানার পোশাক শ্রমিক দম্পতি রেখা আক্তার ও আব্দুল মতিন কয়েক ঘণ্টা বয়সী শিশুটি হাসপাতালে নিয়ে আসেন। তার মুখমণ্ডলসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে বিড়ালের দাঁত ও নখের আচর ও ক্ষত চিহ্ন রয়েছে। হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে তাকে ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এই মুহূর্তে শিশুটি শঙ্কামুক্ত রয়েছে। তবে তাকে দুধ পানের ব্যবস্থা করা জরুরী। এ নবজাতকের বিষয়টি জয়দেবপুর থানা পুলিশ ও জেলা প্রশাসনকে জানানো হয়েছে।

উদ্ধারকারীরা চিকিৎকদের জানিয়েছেন, দুপুরের খাবারের জন্য ওই দম্পতি কারখানা থেকে লক্ষীপুরার ভাড়া বাসায় ফিরছিলেন। পথে তিনসড়ক এলাকায় একটি ডাস্টবিনে প্লাস্টিকের বাজারের ব্যাগ নিয়ে টানাটানি এবং বাচ্চার কান্নার শব্দ পেয়ে এগিয়ে যান। পরে বিড়াল তাড়িয়ে দিয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে দিয়ে যান।

জয়দেবপুর থানা পুলিশের ওসি মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, এ ব্যাপারে জয়দেবপুর থানায় একটি জিডি করা হয়েছে এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।






মন্তব্য চালু নেই