মেইন ম্যেনু

ঢাকাগামী মানুষের ঢল নেমেছে দৌলতদিয়ায়

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটের দৌলতদিয়ায় মানুষের উপচে পড়া ভীড় দেখা গেছে। অতিরিক্ত গরমে যাত্রী ও চালকেরা পড়েছেন চরম দুর্ভোগে। সাথে রয়েছে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ।

সোমবার দুপুরে দৌলতদিয়া ফেরি ও লঞ্চ ঘাট এলাকায় যানজটে আটকে থাকতে দেখা গেছে যাত্রীবাহী বাস, মালামাল বাহী ট্রাক, প্রাইভেটকার ও মাইক্রোবাসগুলোকে। তবে সবচেয়ে বেশি চাপ দেখা গেছে লঞ্চঘাট এলাকায়। সেখানে উপচেপড়া ভীড় রয়েছে সকাল থেকেই।

এছাড়া দৌলতদিয়া প্রান্তের সড়কে যাত্রীবাহী বাস, মাইক্রোবাস, প্রাইভেটকারসহ কয়েকশ যানবাহনকে সিরিয়ালে থাকতে দেখা গেছে। এ সময় তীব্র গরমে চরম ভোগান্তিতে পড়ছেন নদী পারের অপেক্ষায় সিরিয়ালে থাকা যনবাহনের চালক ও যাত্রীরা।

ঢাকামুখি যাত্রীরা বলেন, দৌলতদিয়া প্রান্তের সড়কে তারা দীর্ঘ সময় ফেরির জন্য অপেক্ষায় আটকে আছেন এবং গরমে পরিবার পরিজন নিয়ে ভোগান্তিতে পড়েছেন। কখন ফেরিতে উঠতে পারবেন তা জানেন না।

চালকরা বলেন, এবার ঈদের আগেও দৌলতদিয়া দিয়ে ভালমতো যাত্রীদের গন্তব্যে পৌছে দিতে পারলেও ঈদের পরে ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলায় যেতে দৌলতদিয়া প্রান্তের সড়কে আজ ঘন্টার পর ঘন্টা সিয়িালে বসে থাকতে হচ্ছে। এসময় গরমে যাত্রীদের পাশাপশি তারাও দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন।

দৌলতদিয়া ঘাট কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ছোট বড় ২০টি ফেরি ও ৩৪টি লঞ্চ চলাচল করছে এবং ৬টি ফেরি ঘাটের ৬টি ঘাটই সচল রয়েছে।



মন্তব্য চালু নেই