মেইন ম্যেনু

তিন নৌপথে ফেরি চলাচল বন্ধ

ঘন কুয়াশার কারণে গতকাল রোববার মধ্যরাত থেকে কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া, পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ও শরীয়তপুর-চাঁদপুর নৌপথে ফেরিসহ নৌযান চলাচল বন্ধ রয়েছে। আজ সোমবার সকাল সাড়ে আটটা পর্যন্ত ১৩টি ফেরি তিন নৌপথের মাঝনদীতে আটকে আছে। এতে দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রী ও পরিবহনশ্রমিকেরা।

শিমুলিয়া ও কাঁঠালবাড়ী নৌপথে রোববার দিবাগত রাত দুইটা থেকে কুয়াশার তীব্রতা বেড়ে গেলে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখে ঘাট কর্তৃপক্ষ। এতে ঘাটের উভয় পাড়ে আটকা পড়েছে তিন শতাধিক যানবাহন।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) কাঁঠালবাড়ী ফেরিঘাট সূত্র জানায়, মাঝরাতের পরই কুয়াশার তীব্রতা বাড়তে শুরু করে। এতে ব্যাহত হয় এই নৌরুটে ফেরি চলাচল। কুয়াশা তীব্র আকার ধারণ করলে ফেরিচালকেরা মার্কিং পয়েন্ট ও বিকন বাতি না দেখতে পেয়ে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখেন। এর আগে উভয় ঘাট থেকে ছেড়ে যাওয়া ছয়টি ফেরি যানবাহন ও যাত্রী নিয়ে মাঝনদীতে আটকা পড়ে। তখন থেকে ফেরিগুলো নদীর মাঝে নোঙর করে রাখা হয়েছে। এ ছাড়া অ্যাম্বুলেন্স, কুরিয়ার সার্ভিসের গাড়ি, পণ্যবাহী যানবাহন, নৈশকোচসহ ছোট–বড় মিলিয়ে পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে তিন শতাধিক যানবাহন।

বিআইডব্লিউটিসির কাঁঠালবাড়ী ফেরিঘাটের ম্যানেজার সালাম হোসেন বলেন, মাঝরাত থেকে কুয়াশার তীব্রতা বাড়তে শুরু করলে এই রুটে ফেরিসহ সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ রাখা হয়।
রাত দুইটা থেকে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথে ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে যায় বলে বিআইডব্লিউটিসির দৌলতদিয়া কার্যালয়ের সহকারী ব্যবস্থাপক খোরশেদ আলম জানান। কুয়াশার কারণে মাঝনদীতে ছয়টি ফেরি আটকা পড়ে আছে। আর দৌলতদিয়া ও পাটুরিয়া ঘাটে পাঁচটি করে মোট ১০টি ফেরি আটকে আছে।

ফেরি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় দুই ঘাটে কয়েক কিলোমিটার যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। চরম দুর্ভোগে পড়েছে যাত্রীরা। তাদের একজন বরিশালের গৌরনদীর জহিরুল ইসলাম। রাত সাড়ে ১২টার দিকে তিনি পাটুরিয়া ঘাটে আসেন। আজ সোমবার সকাল সাড়ে আটটা পর্যন্ত তিনি ওই ঘাটেই আটকা পড়ে আছেন।

রাত তিনটা থেকে কুয়াশার কারণে শরীয়তপুর-চাঁদপুর নৌপথে ফেরিসহ অন্যান্য যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। এই নৌপথের আলুবাজার ফেরিঘাটের বিআইডব্লিউটিসির ব্যবস্থাপক আবদুস সাত্তার বলেন, এই পথের তিন ফেরির মধ্যে একটি এখন মাঝনদীতে আটকা পড়ে আছে। আর বাকি দুটি আছে দুই ঘাটে। আলুবাজার ঘাটে শতাধিক গাড়ি এখন আটকে আছে বলেও জানান তিনি।






মন্তব্য চালু নেই