মেইন ম্যেনু

দাদির পাশেই হবে নুসরাতের শেষ ঠিকানা

দুর্বৃত্তের দেওয়া আগুনে দগ্ধ হয়ে হাসপাতালে মারা যাওয়া ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি সমাহিত হবেন দাদির পাশে। পারিবারিক সূত্র এ খবর নিশ্চিত করেছে।

জানা গেছে, আজ বৃহস্পতিবার বাদ আসর সোনাগাজী মো. ছাবের সরকারি পাইলট হাইস্কুল মাঠে নুসরাতের জানাজা নামাজ অনুষ্ঠিত হবে। এরপর পারিবারিক কবরস্থানে দাদির কবরের পাশে তাকে সমাহিত করা হবে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার রাতে মারা যান নুসরাত। এর আগে শনিবার গুরুতর অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় তিনি বার্ন ইউনিটে ভর্তি হন। সোমবার তাকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়।

ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার আলিম পরীক্ষার্থী নুসরাতকে শনিবার সকালে পরীক্ষাকেন্দ্রের ভেতরেই তিনতলা ভবনের ছাদে নিয়ে শরীরে আগুন দিয়ে হত্যার চেষ্টা করে দুর্বৃত্তরা। চারজন বোরকা পরে এ হত্যাচেষ্টায় অংশ নেয় বলে নুসরাত জানায়।

চিকিৎসকরা জানান, তার শরীরের ৮০ শতাংশ দগ্ধ হয়। এর মধ্যে ৭০ শতাংশই গভীরভাবে দগ্ধ।

এর আগে ২৭ মার্চ ওই মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলা তার নিজ কক্ষে ডেকে নিয়ে নুসরাতের শ্লীলতাহানি করে বলে অভিযোগ ওঠে। ওই ঘটনায় থানায় মামলা করলে গ্রেপ্তার হন অধ্যক্ষ।

নুসরাতের পরিবারের অভিযোগ, অধ্যক্ষের পক্ষের লোকই পরিকল্পিতভাবে নুসরাতকে হত্যা করতে চেয়েছিল।



মন্তব্য চালু নেই