মেইন ম্যেনু

দিনে কত বার মুখ ধোয়া জরুরি?

বর্ষা শুরু হয়ে গেলেও প্রভাব কিছুতেই কাটছে না। বাতাসে আদ্রতার পরিমাণ অনেকটাই বেশি। অল্পতেই মুখ ঘেমে যায়। সেই সঙ্গে ত্বকও অতিরিক্ত তেলতেলেও হয়ে ওঠে। তাই বলে তো আর একটু পরপরই মুখ ধোয়া চলবে না।

বারবার মুখ ধুলে ত্বকের ময়েসচার চলে যাবে। ফলে ত্বক দ্রুত রুক্ষ ও শুষ্ক হয়ে যাবে। তাহলে দিনে কত বার আমরা মুখ ধুতে পারি ত্বকের কোনও ক্ষতি না করেই?

সারাদিনে আপনি কমপক্ষে ৩ বার থেকে সর্বোচ্চ ৫ বার পর্যন্ত মুখ ধুতে পারেন। আমাদের দেশের পরিবেশ ও আবহাওয়ার উপরে নির্ভর করলে ৫ বার পর্যন্ত মুখ ধোয়া যেতে পারে সারাদিনে। তবে আপনি যদি শীত প্রধান দেশে থেকে থাকেন তবে আপনার জন্য দিনে সর্বোচ্চ দুই বার মুখ ধোয়া যাবে। কিন্তু কখন কখন? আসুন জেনে নেওয়া যাক।

প্রথমবার মুখ ধুতে হবে দিনের শুরুতেই। ঘুম থেকে উঠে অনেকেই গোসল সেরে নেন। সারাদিন ফ্রেশ থাকার এটাই সব থেকে ভাল উপায়। এতে আপনার মুখের ত্বকটাও পরিষ্কার হয়ে যাবে। যদি কোনও কারণে গোসল করা সম্ভব না হয় তবে ভাল করে অন্তত মুখ ধুয়ে ফেলুন। মুখ ধোয়ার জন্য আপনার ত্বকের উপযোগী কোনও ফেসওয়াস ব্যবহার করতে পারেন।

এছাড়াও রাতে শোবার আগে ভাল করে মুখ ধুয়ে নিতে ভুলবেন না। এ সময়েও আপনার ত্বকের উপযোগী কোনও ফেসওয়াস ব্যবহার করতে পারেন। এবং এরপর অবশ্যই ময়েশ্চারাইজার ক্রিম বা জেল মুখের ত্বকে লাগিয়ে নিন। এতে সারা রাত আপনার তকের আদ্রর্তা বজায় থাকবে ও সকালে যখন আপনি উঠবেন তখন আপনার ত্বকে কোমল ভাব অনুভব করবেন।

এছাড়াও সারাদিন বাইরে কাটিয়ে আসার পরে বাড়িতে এসেই ভাল করে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এ সময় চাইলে ঘরে তৈরি করা যায় এমন ফেসপ্যাক মুখে লাগিয়ে নিন। ২০ মিনিট রাখুন। ফেসপ্যাক তুলে ফেলার পরে মুখ ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ভাল করে ধুয়ে নিন। এর পরে আর ফেসওয়াস ব্যবহারের দরকার পড়বে না।

এছাড়াও বাকি দুয়েকবার আপনার নিজের চাহিদা ও সময় অনুযায়ী ত্বক পরিষ্কার করে নিতে পারেন। কোনও অনুষ্ঠান, পার্টিতে যাওয়ার আগে বা অফিসের মাঝে আপনার প্রয়োজন বুঝে মুখ ধুতে পারেন। বিকালে একবার মুখ ধোয়া যেতেই পারে। যাঁরা নিয়মিত শরীরচর্চা করেন, তাঁরা শরীরচর্চার পর অবশ্যই একবার ধুয়ে নেবেন। গৃহিণীরা রান্নার কাজ শেষ করে অতি অবশ্যই মুখ পরিষ্কার করে ধুয়ে নেবেন।



মন্তব্য চালু নেই