মেইন ম্যেনু

দিল্লির বায়ু দূষণে বিপর্যস্ত শ্রীলঙ্কা, মাঠেই বমি লাকমলের

দিল্লির ফিরোহ শাগ কোটলা স্টেডিয়ামে চলছে ভারত-শ্রীলঙ্কার টেস্ট লড়াই। আর সেখানেব্যাটে-বলের লড়াই যেন গৌণ হয়ে গিয়েছে। শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটারদের এখন লড়তে হচ্ছে ভারতের দূষণের বিরুদ্ধে। তা করতে গিয়ে মাঠেই অসুস্থ হয়ে পড়লেন সুরঙ্গা লাকমল। ফিল্ডিং করার সময় বমি করতে দেখা গেল তাঁকে।

দিল্লির দূষণ ভারতবাসীর কাছে নতুন কিছু নয়। এবার দিওয়ালির সময় দূষণ নিয়ন্ত্রণে অনেক সতর্কতা নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তাতেও কাজের কাজ কিছু হয়নি। এবারও দূষণের মোটা চাদরে ঢেকেছে দিল্লি।

প্রথম ইনিংসেই ঘটনার সূত্রপাত। ভারতীয় ব্যাটসমানরা তখন রানের ফুলঝুরি ছোটাচ্ছেন।

টানা দুটি টেস্টে দ্বিশতরান করে, ছটি দ্বিশতরানের মালিক হয়ে লারাকে টপকে ড্রেসিংরুমে ফিরেছেন ক্যাপ্টেন কোহলি। এমন সময় সমস্যা শুরু হয়। দূষণের জেরে কোনও শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটারই ঠিকঠাক খেলতে পারছিলেন না। মাস্ক ব্যবহার করেও স্বস্তি মেলেনি। ফলে একে একে মাঠ ছাড়ছিলেন। একটা সময় দলের ফিল্ডিং করারই খেলোয়াড়ের অভাব পড়ে। শেষমেশ দলের ফিজিওকে জার্সি পরতে দেখা যায়। তারপরই ক্রুদ্ধ কোহলি ইনিংস ডিক্লেয়ার করে নিজেরা ফিল্ডিং করতে নামেন।

প্রাথমিকভাবে এ ঘটনায় অনেকেই শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটারদের মনোভাব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন। কিন্তু দ্বিতীয় ইনিংস চলাকালীন দেখা গেল, সত্যিই সমস্যায় পড়েছেন ক্রিকেটাররা। এদিন রীতিমতো অসুস্থ হয়ে পড়েন লাকমল। খেলা সাময়িক বন্ধ থাকে। থার্ড ম্যানে ফিল্ডিং করতে করতে মাঠের মধ্যেই শুয়ে পড়েন তিনি। দলের ফিজিও এসে তাঁর শ্রূশুষা করেন। সে সময়ই বমি করতে দেখা যায় তাঁকে। অর্থাৎ স্রেফ মনোভাব নয়, শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটাররা যে সত্যিই সমস্যায় পড়েছেন তা স্পষ্ট।

ভারতীয় ক্রিকেটাররা অবশ্য মাস্ক ব্যবহার করছেন না। শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটাররাও ব্যাট করার সময় মাস্ক পরছেন না ঠিকই, কিন্তু ফিল্ডিং করতে গেলেই সমস্যায় পড়ছেন। এদিকে ঘটনার জের গড়িয়েছে বহুদূর। ওয়ানডে সিরিজের জন্য নয়জন শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটার ভারতে পাড়ি দেওয়ার জন্য তৈরি হচ্ছিলেন। কিন্তু সে দেশের ক্রীড়ামন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সময়ক্ষেপণ করার কথা বলা হয়েছে।

ভারতের দূষণ ও দূষণ নিয়ন্ত্রণ নিয়ে মনোভাবে স্পষ্টতই অসন্তুষ্ট সে দেশের মন্ত্রী। বিসিসিআই-এর পক্ষে জানানো হয়েছে, এরপর থেকে দূষণের সময় দিল্লিতে ম্যাচ হবে কিনা, তা বিবেচনা করে দেখা হবে। তবে আপাতত দূষণ বাউন্সারে ভারত-শ্রীলঙ্কা সিরিজের ভাগ্যই যেন অনেকটা জটিল হয়ে পড়ল।






মন্তব্য চালু নেই