মেইন ম্যেনু

দুই ধর্ষককে নগ্ন করে রাস্তায় ঘোরালো নারীরা (ভিডিও)

১৭ বছরের এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে দুই ধর্ষককে নগ্ন করে রাস্তায় ঘুরিয়েছে বিক্ষুব্ধ নারীরা। ওই দুই ধর্ষকের হাত পেছনে বেঁধে রাস্তায় ঘোরানোর সময় নারীরা তাদের ব্যাপক মারপিট করেন। বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ দৈনিক ডেইলি মেইল এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের অরুণাচল প্রদেশের ইংকিওং শহরে এ ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয় পুলিশের হাতে ওই দুই ধর্ষককে সোপর্দ করার আগে ইংকিওংয়ের রাস্তায় ঘোরানো হয়।

পুলিশের উপ-মহাপরিদর্শক জন নেইহালাইয়া বলেন, ‘পুলিশের কাছে দু’জনকে হস্তান্তরের আগে স্থানীয় জনতা এ কাজ করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।’

তিনি বলেন, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বন্ধুত্ব হওয়ার পর দুই ধর্ষকের একজনের সঙ্গে বাইরে যেতে রাজি হয় ধর্ষণের শিকার কিশোরী। পরে ওই বন্ধু ও তার অপর তিন বন্ধু মিলে কিশোরীকে ধর্ষণ করে।

ধর্ষণ শেষে রাত ২টার দিকে কিশোরীকে তার বাড়ির কাছে নামিয়ে দিয়ে যায় ধর্ষকরা। পরদিন সকালে সাহসী ওই কিশোরী পুলিশের কাছে গিয়ে অভিযোগ জানায়।

উপ-মহাপরিদর্শক জন নেইহালাইয়া বলেন, ‘অন্যদিকে ধর্ষণের শিকার কিশোরীর আত্মীয়-স্বজন ও প্রতিবেশিরা অভিযুক্ত ধর্ষকদের দু’জনকে তাদের বাড়ি থেকে ধরে আনে। পরে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।’

পুলিশ অপর দুই সন্দেহভাজন ধর্ষকের খোঁজে অভিযান চালাচ্ছে; যাদের বয়স ২০ বছর।

ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষকদের ধরে এনে একইভাবে রাস্তায় নগ্ন করার পর মারপিটের অতীত ইতিহাস আছে অরুণাচলের স্থানীয়দের। গত মাসেও ৮ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে দাপোরিজো শহরে ধর্ষককে নগ্ন করে পুরো শহর প্রদক্ষিণ করানো হয়।

তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে সহিংস মারধরের ঘটনাও ঘটে। গত মাসে প্রদেশের তেজু শহরের পুলিশ স্টেশনে হামলা চালিয়ে দুই ধর্ষককে ছিনিয়ে এনে পিটিয়ে হত্যা করে স্থানীয় উত্তেজিত জনতা। পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ ছিল ওই দুই ধর্ষকের বিরুদ্ধে।

একদিন পর ইংকিওংয়ের পুলিশ স্টেশনে হামলা চালায় প্রায় ৯ শতাধিক মানুষ। পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণে অভিযুক্ত ধর্ষককে অন্য জেলায় সরিয়ে নেয়ার অভিযোগে ওই হামলা হয়। সূত্র : ডেইলি মেইল

ভিডিওতে দেখতে এখানে ক্লিক করুন



মন্তব্য চালু নেই