মেইন ম্যেনু

দু’বছর ধরে চলা জরুরি অবস্থা তুলে নিচ্ছে তুরস্ক

অবশেষে দু’বছর ধরে চলা জরুরি অবস্থা তুলে নিতে যাচ্ছে তুরস্ক। আগামী সপ্তাহের ১৮ জুলাই জরুরি অবস্থা তুলে নেয়া হবে। শুক্রবার নতুন কার্যনির্বাহী প্রেসিডেন্টের অধীনে নতুন মন্ত্রীনভার প্রথম বৈঠকে বহু প্রতীক্ষিত ওই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

২০১৬ সালের জুলাই মাসে তুরস্কে ব্যর্থ সামরিক অভ্যুত্থানের পর থেকে দেশজুড়ে সাতবার জরুরি অবস্থা জারি করা হয়। জরুরি অবস্থার কারণে নতুন আইন পাস এবং অধিকার ও স্বাধীনতার ক্ষেত্রে যে কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণে পার্লামেন্টের ক্ষমতা বৃদ্ধি পেয়েছে।

সামরিক অভ্যুত্থান ব্যর্থ হওয়ার পর নির্বাসিত নেতা ফেতুল্লাহ গুলেন এবং বিভিন্ন সন্ত্রাসী সংগঠনের সঙ্গে সম্পৃক্ততার অভিযোগে ১ লাখ ১০ হাজারের বেশি কর্মচারীকে তাদের পদ থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। অপরদিকে প্রায় দেড় হাজার প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

দেশের সঙ্গে বিভিন্ন দেশের সম্পর্ক এবং নিজেদের সুনাম অক্ষুণ্ন রাখতে বহুদিন ধরেই জরুরি অবস্থা তুলে নেয়ার আহ্বান জানিয়ে আসছে তুরস্কের বিভিন্ন ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান। তুরস্কের এমন সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। তাদের দাবী, এমন সিদ্ধান্তের কারণে তুরস্কের মানুষের বেসামরিক এবং রাজনৈতিক অধিকার বাধাগ্রস্ত হচ্ছে।



মন্তব্য চালু নেই