মেইন ম্যেনু

দেশে ভূতের সরকারের অধীনে নির্বাচন চান খালেদা : ইনু

কখনও নির্বাচনকালীন তত্ত্বাধায়ক সরকার এবং কখনও সহায়ক সরকারের দাবি তোলা বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া আসলে কী চান সে প্রশ্ন রেখেছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। তিনি বলেন, ‘তিনি (খালেদা জিয়া) কখনও সহায়ক সরকার, কখনও নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের কথা বলছেন। উনি কার্যত দেশে একটি ভূতের সরকারের অধীনে নির্বাচন করার কথা বলছেন।’

মঙ্গলবার সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে তিনি এ মন্তব্য করেন। এ সময় মূলত রবিবার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপির সমাবেশে খালেদা জিয়ার বক্তব্যের প্রতিক্রিয়া জানান তথ্যমন্ত্রী।

ইনু বলেন, ‘২০০৮ সাল থেকে খালেদা জিয়া অস্বাভাবিক পথে হেঁটেছেন, এখনও তিনি সেই পথেই আছেন। উনি বদলাননি। সেজন্যই পরিষ্কারভাবে বলেছেন, শেখ হাসিনার অধীনে, সংবিধানের অধীনে তিনি নির্বাচন করবেন না।’

‘তিনি একটি ভূতের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে চান, অস্বাভাবিক সরকার প্রতিষ্ঠা করতে চান।’

তথ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা আশা করেছিলাম বিদেশ থেকে ফিরে আদালতে এবং সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে খালেদা জিয়া তার ভাষণে আগুন সন্ত্রাস, মানুষ পোড়ানো, রাজাকারদের রাজনৈতিক আশ্রয় দেওয়ার জন্য জাতির কাছে মাফ চাইবেন। আশা করেছিলাম রাজনীতি থেকে জামায়াত ও জঙ্গি প্রত্যাহারের ঘোষণা দেবেন। নির্বাচন নিয়ে আরও গঠনমূলক কথা বলবেন। তবে সে আশা পূরণ হয়নি।’

‘খালেদা জিয়া উল্টো সামরিক বাহিনী, মানুষ পোড়ানো, টাকা পাচারকারী, জঙ্গি-সন্ত্রাস এবং ছেলে ও পরিবার পরিজনদের পক্ষে সাফাই গেয়েছেন।’






মন্তব্য চালু নেই