মেইন ম্যেনু

ধর্মঘটে ইসির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা

একটি প্রকল্পের লোকবল নিয়োগে বয়স ও শিক্ষাগত যোগ্যতা শিথিল করায় অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট শুরু করেছেন নির্বাচন কমিশনের (ইসি) কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। আগারগাঁওস্থ নির্বাচন ভবনে সোমবার সকাল থেকে এ কর্মসূচি পালন করছেন তারা। এর আগে রোববার বিকেলে এক সভা থেকে ধর্মঘট পালনের ঘোষণা দেয় ইসির অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশন ও কর্মকর্তা-কর্মচারী ঐক্য পরিষদ মিলে সমন্বয় পরিষদ। ইসির উপসচিব মো. নুরুজ্জামান তালুকদারের সভাপতিত্বে ওই সভায় সকল উপসচিব, সিনিয়র সহকারী সচিব, সহকারী সচিবসহ কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

কর্মকর্তা-কর্মচারী ঐক্য পরিষদের মহাসচিব ওসমান গনি জয় বলেন, ‘২৪ সেপ্টেম্বর ‘ভোটার তালিকা প্রস্তুত এবং জাতীয় পরিচিতি সেবা প্রদানে টেকসই অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প’ শীর্ষক নতুন প্রকল্পের ডিপিপি পরিকল্পনা কমিশন থেকে বিনাশর্তে ফেরত না আনা হলে এই কর্মসূচি চলতে থাকবে।’

তিনি বলেন, ‘আজ আমাদের বৈঠক আছে। সেখানে পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।’

ইসি কর্মকর্তারা জানান, কমিশনের নতুন ১৬০০ কোটি টাকার প্রকল্পে টেকনিক্যাল এক্সপার্ট ও সাপোর্টার, যারা বর্তমানে ১০ম গ্রেডে আছে, তাদের বয়স ও শিক্ষাগত যোগ্যতা শিথিল করে রোববার পরিকল্পনা কমিশনে একটি প্রস্তাবনা পাঠানো হয়েছে।

যেখানে প্রথম শ্রেণির কর্মকর্তাদের নিয়োগের নিয়ম মানা হয়নি। তাছাড়া এটি বাস্তবায়িত হলে ২০০৫ সালে পিএসসির মাধ্যমে সরাসরি নিয়োগপ্রাপ্ত সহকারী সচিব ও উপজেলা অফিসার হিসেবে নিয়োগ পাওয়ারাও এদের জুনিয়র হয়ে যাবেন।

ইসি কর্মকর্তারা জানান, এই সিদ্ধান্ত কিছুতেই মেনে নেয়া যায় না। এটি বাতিল করা না হওয়া পর্যন্ত সমন্বিত পরিষদে অনির্দিষ্টকালের জন্য নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীরা তাদের ধর্মঘট অব্যাহত রাখবেন।






মন্তব্য চালু নেই