মেইন ম্যেনু

ধামইরহাটে হত্যার পর মৃত স্ত্রীর সঙ্গে ঘুম!

নওগাঁর ধামইরহটে পিটিয়ে হত্যার পর মৃত স্ত্রী ফুলমনি হাজদার (৫০) সঙ্গে ঘুমিয়ে রাত কাটিয়েছেন মাদকাসক্ত স্বামী সেভেন মূর্মু (৫৫)।

উপজেলার আলমপুর ইউনিয়নের ভেরম সোনাদিঘী গ্রামের শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় ঘাতক স্বামী সেভেন মূর্মুকে আটক করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,রাত সাড়ে ১০টার দিকে চোলাই মদপান করে বাড়িতে ফেরেন স্বামী সেভেন। এসময় স্ত্রী ফুলমনির কাছে রাতের খাবার চাইলে দুজনের মধ্যে ঝগড়া হয়।

ঝগড়ার এক পর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে স্ত্রী ফুলমনির মাথায় লাঠি দিয়ে স্বজোরে আঘাত করেন স্বামী। এতে রক্তক্ষরণের এক পর্যায়ে ফুলমনি মারা যান।

ঘটনার পর সেভেন মূর্মু নেশাগ্রস্ত অবস্থায় স্ত্রীকে জড়িয়ে ধরে ঘুমিয়ে পড়েন। স্বামী সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখেন স্ত্রী মৃত অবস্থায় পড়ে আছেন এবং মাথায় আঘাতের চিহ্ন ও রক্ত ঝরছে।

গ্রামবাসী বিষয়টি জানার পর পুলিশে খবর দেয়। ঘটনাস্থল থেকে ঘাতক স্বামী সেভেন মূর্মুকে আটক করেছে।

ধামইরহাট থানার ওসি জাকিরুল ইসলাম বলেন, ঘাতক সেভেন মূর্মুকে আটক করা হয়েছে। তিনি স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার কথা শিকার করেছেন। মূলত মাদক সেবন করে নেশাগ্রস্ত অবস্থায় এ অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটিয়েছেন তিনি।

ঘটনাস্থল থেকে নিহতের মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।



মন্তব্য চালু নেই