মেইন ম্যেনু

ধোনির জীবনসঙ্গী হতে পারেননি দীপিকা কারণ যুবরাজ!

একজন ব্যাট হাতে ২২ গজে একের পর এক বিস্ময় উপহার দিয়ে চলেছেন। অন্যজন রুপালি পর্দা কাঁপাচ্ছেন। প্রথম জন মহেন্দ্র সিং ধোনি, অন্যজন দীপিকা পাড়ুকোন। শোনা যায়, দু’জন একে অন্যের বেশ কাছাকাছি চলে এসেছিলেন। কিন্তু সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে পারেননি।

২০০৭ সালের ঘটনা। ফারাহ খান পরিচালিত ‘ওম শান্তি ওম’ ছবিতে দীপিকার অভিনয় সকলেরই মন জিতে নিয়েছিল। এর কিছুদিন আগেই ধোনির নেতৃত্বে দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জিতেছিল ভারত। দু’জনেই যখন সাফল্যের প্রথম ধাপে পা দিয়ে ফেলছেন, তখনই তাঁদের পরস্পরের সঙ্গে আলাপ হয়। এর পর দু’জনে বেশ কয়েকবার ডেটিংও করেন। এমনটাও অনেকে বলেন, ধোনি দীপিকাকে বিয়ের জন্য প্রস্তাবও দিয়েছিলেন।

কিন্তু তখনই দীপিকা পাড়ুকোনের জীবনে নতুন ভূমিকা নিয়ে আসেন যুবরাজ সিং। শোনা যায়, এর পর থেকেই ধোনির সঙ্গে তাঁর দূরত্ব বাড়তে থাকে। ২০০৭ সালে জয়পুরে একটি ম্যাচ দেখতে মাঠে গিয়েছিলেন দীপিকা। সেখানেও যুবরাজের জন্যই গলা ফাটান তিনি। সব মিলিয়ে ধীরে ধীরে নিজেকে দূরে সরিয়ে নেন ধোনি।

সেখানেই তাঁদের সম্পর্কের ইতি ঘটে। যদিও কখনও প্রকাশ্যে এই কথা স্বীকার করেননি ধোনি। এ নিয়ে মুখ খোলেননি দীপিকা বা যুবরাজও। বলা বাহুল্য, যুবরাজ-দীপিকার সম্পর্কও শেষমেশ পরিণতি পায়নি।

এখন হ্যাজেল কিচের সঙ্গে সুখেই ঘর করছেন যুবি এবং অন্যদিকে স্ত্রী-কন্যাকে নিয়ে সুখে রয়েছেন ধোনিও। পাশাপাশি রণবীর সিংয়ের সঙ্গে চুটিয়ে প্রেম করছেন দীপিকা। জল্পনা চলছে, খুব শিগগির নাকি তারা বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছেন।






মন্তব্য চালু নেই