মেইন ম্যেনু

নাক বন্ধ ভাব হলে

অধ্যাপক ডা. জাহীর আল-আমিন : নাক বন্ধ থাকার অন্যতম কারণ নাকের হাড় একদিকে বেঁকে থাকলে। এ রোগীদের নাক দিয়ে সর্দি ঝরে, নাকে ঠিকমতো গন্ধ পাওয়া যায় না, নাকে দুর্গন্ধ হয়, মাথা ভার থাকে।

হঠাৎ তীব্র ইনফেকশন হলে রোগীদের উচ্চমাত্রায় জ্বর হয়, নাক দিয়ে শ্বাস নিতে না পারার কারণে ঘুমের মধ্যে নাক ডাকে। জটিলতা হিসেবে কানে কম শোনা, কানে ব্যথা ও পানি জমতে পারে।

কানের পর্দা ফেটে যাওয়াও অসম্ভব নয়।

আমাদের যাদের নাক অতটা খাড়া নয় তাদের নাকের হাড় বাঁকা হলে তেমন সমস্যা সৃষ্টি হয় না। যাদের হাড় বাঁকা বেশি থাকে তাদেরই উপরের সমস্যা বেশি হয়।

অনেকের ধারণা, হাড় একদিকে বেঁকে গেলে অন্যদিকের অংশ বড় হয়ে যাবে। আসলে এটি সত্য নয়, যেদিকে হাড় বেঁকে গেছে তার উল্টা দিকে জায়গা বেশি থাকাতে নরমাল পেশীগুলো বৃদ্ধিপ্রাপ্ত হবে সেদিকটাও ভরে যায়। এর সঙ্গে অ্যালার্জি, ইনফেকশন বা নাকের ভেতর পলিপ তৈরি হয়ে সমস্যা আরও জটিল হবে।

কী করবেন : আধুনিক যুগে নাকের হাড় বাঁকা থাকলে সেপ্টোপ্লাস্টি অপারেশন করা হয়। এতে জটিলতা নেই। নাকের বাহ্যিক কাঠামোতে কোনো সমস্যা থাকলে সেপ্টোপ্লাস্টির সঙ্গে রাইনোপ্লাস্টি অপারেশনও করা যায়। এ পদ্ধতিতে ৬-৭ বছরের শিশুদেরও অপারেশন করা যায়।

নাক কান গলা রোগ বিশেষজ্ঞ ও সার্জন
ইমপালস হাসপাতাল, তেজগাঁও, ঢাকা






মন্তব্য চালু নেই