মেইন ম্যেনু

নিজেকে রেখেই নির্বাচন প্যানেল ঘোষণা করলেন পাপন

পরিচালনা পর্ষদের নতুন নির্বাচনে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) বর্তমান সভাপতি নাজমুল হাসান থাকবেন কি থাকবেন না এ নিয়ে জল কম ঘোলা হয়নি। তবে শুক্রবার রিটার্নিং আফিসারের কার্যালয় থেকে মনোনয়নপত্র ফর্ম কেনার পর সংবাদ সম্মেলনে জানালেন নির্বাচন করছেন তিনি। এবং নিজেদের প্যানেল ঘোষণা করেন পাপন। গতবারের সঙ্গে তেমন কোনো পরিবর্তন নেই এবারের প্যানেলে। তবে শেষে ঢাকা ও বরিশাল বিভাগে নির্বাচন হতে পারে বলেও জানান তিনি।

মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামের বিসিবি কার্যালয়ের সামনে সংবাদ সম্মেলনে পাপন বলেন, ‘আমরা যারা ইচ্ছুক সবাই মনোনয়নপত্র ফরম নিয়েছি। গতবার আমরা যারা ঢাকার ক্লাব থেকে নিয়েছিলাম, তারাই এসেছি। অনান্য বিভাগ থেকে যা ছিল একই আছে। এখানে দুটি পরিবর্তন এসেছে। বরিশালে দুজন ফরম নিয়েছে। ওখানে নির্বাচন হওয়ার কথা। এছাড়া ঢাকা বিভাগে নির্বাচন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।’
‘এছাড়া ইকবাল ভাই এতোদিন কোন বোর্ড মিটিংয়ে আসেননি আমরা ধরে নিয়েছি উনি আসবেন না। উনার জায়গায় আমরা মঞ্জুর কাদেরকে ক্লাব থেকে নিয়েছি। টিংকু ভাই মারা গেছেন, ওই জায়গাটা এমনিতেই পূরণ হয়ে গেছে। আগে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ থেকে ৩ জন ছিল, এখন ২ জন।’

‘নতুন কারো আসার সম্ভাবনা মাত্র দুটি জায়গায়। বরিশাল ও ঢাকা বিভাগে। বরিশালে উনিই ছিলেন, ঢাকাতে দুর্জয় ছিল, উনি আমাদের সঙ্গেই ছিলেন। এছাড়া আরও একজন শেখ নাঈম। বেসিক্যালি আমাদের তেমন কোন পরিবর্তন নেই। মঞ্জুর কাদের আগেরবার মুন্সিগঞ্জ থেকে এসেছিলেন, তিনি এবার এসেছেন ক্লাব থেকে।’

এদিকে বিসিবি পরিচালনা পরিষদ নির্বাচন রিটার্নিং অফিসার আনিস মাহমুদ জানিয়েছেন তিনটি ক্যাটাগরিতে মোট ৩০টি মনোনয়নপত্র ফরম বিক্রয় হয়। ক্যাটাগরি-১ এ ১৫টি, ক্যাটাগরি-২ এ ১৪টি এবং ক্যাটাগরি-৩ এ একটি ফরম বিক্রয় হয়েছে। মনোনয়নপত্র দাখিল করা যাবে ২৪ অক্টোবর সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত।

এরপর ২৫ অক্টোবর হবে মনোনয়নপত্র বাছাই এবং চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশ। এরপর ২৮ অক্টোবর প্রার্থীদের ব্যাপারে আপিল গ্রহণ এবং শুনানি হবে। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করার সুযোগ এর পরের দিন সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টার মধ্যে। একইদিনে বেলা ১টায় ঘোষণা করা হবে চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা। ৩১ অক্টোবর হবে মূল নির্বাচন।
নাজমুল হোসেন পাপনের প্যানেল

ক্যাটাগরি-১ : ঢাকা বিভাগ থেকে নাঈমুর রহমান দুর্জয়, চট্টগ্রাম বিভাগ থেকে আজম নাসির ও আকরাম খান, খুলনা বিভাগ থেকে -শেখ সোহেল ও কাজী এনাম আহমেদ, রাজশাহী বিভাগ থেকে শফিউল আলম স্বপন, বরিশাল বিভাগ থেকে এম এ আউয়াল চৌধুরী ভুলু, সিলেট বিভাগ থেকেঠ শফিউল আলম চৌধুরী এবং রংপুর বিভাগ থেকে এডভোকেট আনোয়ারুল ইসলাম।

ক্যাটাগরি-২ : নাজমুল হাসান পাপন, আহমেদ সাজ্জাদুল আলম ববি, এনায়েত হোসেন সিরাজ, মাহবুব আনাম, আফজালুর রহমান সিনহা, মঞ্জুরুল কাদের, জালাল ইউনুস, নজিব আহমেদ , ইসমাইল হায়দার মল্লিক, গাজী গোলাম মুর্তজা, লোকমান হোসেন ভুঁইয়া, হানিফ ভুঁইয়া, শওকত আজিজ রাসেল ও তানজীল চৌধুরী।

ক্যাটাগরি-৩ : খালেদ মাহমুদ সুজন।






মন্তব্য চালু নেই