মেইন ম্যেনু

নিজ কক্ষের ফ্যানে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার জাবি ছাত্রের মৃত্যু

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) মীর মশাররফ হোসেন হলে নিজ কক্ষের ফ্যান থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার হওয়া মো. আদনান নামের এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মীর মশাররফ হোসেন হলের বি ব্লকের ৪৫০ নম্বর কক্ষে আদনানকে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়।

আদনান বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগের ৪১তম ব্যাচের স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থী ছিলেন।

ওই হলের আবাসিক কিছু শিক্ষার্থী জানান, রাতে জোনাইদ নামে একই বিভাগের ৪৩ তম ব্যাচের এক শিক্ষার্থী শিট নেওয়ার জন্য আদনানের কক্ষে গেলে দরজা ভেতর থেকে বন্ধ পান। সে সময় জোনাইদ ওই কক্ষের জানালা দিয়ে ভেতরে আদনানকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান। পরে জোনাইদের ডাকাডাকিতে পাশের অন্য কক্ষের শিক্ষার্থীরা জড়ো হন এবং আদনানকে উদ্ধার করে বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসাকেন্দ্রে নিয়ে যান। চিকিৎসাকেন্দ্রে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানোর নির্দেশ দেন। পরে সেই হাসপাতালে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক আনায়ারুল কাদির নাজিম রাত সোয়া ১১টার দিকে আদনানকে মৃত ঘোষণা করেন।

সহপাঠীরা জানান, আদনানের গ্রামের বাড়ি মানিকগঞ্জ জেলায়। হলে তিনি নিয়মিত অবস্থান করতেন না। তিনি রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে থাকতেন।

বিভাগ সূত্র জানিয়েছে, আদনান তাঁর বিভাগের একজন নিয়মিত ছাত্র ছিলেন। তিনি কোনো সমস্যায় ভুগছিলেন কি না, এমনটা কেউ জানাতে পারেননি। তাই তিনি আত্মহত্যা করেছেন নাকি তাঁকে হত্যা করা হয়েছে, তা নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না।

তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক তপন কুমার সাহা বিষয়টিকে আত্মহত্যা দাবি করে সাংবাদিকদের বলেন, ‘কী কারণে আদনান আত্মহত্যা করেছে, সে বিষয়ে খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে। তার পরিবারের লোকজনের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হচ্ছে।’






মন্তব্য চালু নেই