মেইন ম্যেনু

নির্বাচন পর্যবেক্ষণে স্থানীয়দের অর্থায়ন করবে যুক্তরাজ্য

বাংলাদেশের আসন্ন নির্বাচন পর্যবেক্ষণে যুক্তরাজ্য স্থানীয় পর্যবেক্ষকদের অর্থায়ন করবে বলে জানিয়েছেন দেশটির ফরেন অ্যান্ড কমনওয়েলথ দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী মার্ক ফিল্ড। বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে দেশটির একজন এমপির লিখিত প্রশ্নের জবাবে বুধবার এ কথা জানান তিনি।

ফলে নির্বাচন পর্যবেক্ষণে যুক্তরাজ্য নিজস্ব কোনো প্রতিনিধি দল পাঠাবে কি-না সেটি অস্পষ্টই থেকে গেল। এর আগে বিশ্বব্যাপী গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখা বৃহত্তম জোট ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) এবারের নির্বাচনে পর্যবেক্ষক দল না পাঠানোর সিদ্ধান্তের কথা জানায়। এর বিপরীতে তারা ছোট আকারের নির্বাচন বিশেষজ্ঞ দল পাঠাবে।

যুক্তরাজ্যের ক্ষমতাসীন দল কনজারভেটিভ পার্টির এমপি অ্যান মেইন দুটি ভিন্ন প্রশ্নে বাংলাদেশের আসন্ন নির্বাচন পর্যবেক্ষণ, প্রচারণায় সব পক্ষের সমান সুযোগ এবং ভোটার তালিকার স্বচ্ছতা নিশ্চিতকরণে যুক্তরাজ্যের ভূমিকার বিষয়ে জানতে চান। বাংলাদেশের নির্বাচন বিষয়ে ব্রিটিশ ফরেন অ্যান্ড কমনওয়েলথ দপ্তরের বিবৃতি আশা করেন তিনি। বাংলাদেশিদের বন্ধু হিসেবে পরিচিত অ্যান মেইন দীর্ঘদিন যাবৎ ব্রিটিশ পার্লামেন্টের বাংলাদেশ বিষয়ক সর্বদলীয় কমিটির চেয়ার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

লিখিত জবাবে ব্রিটিশ প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে আসন্ন নির্বাচনে আন্তর্জাতিক মহলের নজরদারির প্রয়োজনীয়তার কথা অব্যাহতভাবে তুলে ধরেছে যুক্তরাজ্য। ইইউ একটি বিশেষজ্ঞ দল (ইলেকশন এক্সপার্ট মিশন) পাঠাতে সম্মত হয়েছে। এর পাশাপাশি নির্বাচন পর্যবেক্ষণে স্থানীয় পর্যবেক্ষকদের অর্থায়ন করবে যুক্তরাজ্যের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন বিভাগ।

মার্ক ফিল্ড আরও জানান, যুক্তরাজ্য অব্যাহতভাবে বাংলাদেশে অবাধ, নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের পক্ষে অবস্থান তুলে ধরেছে। এ লক্ষ্যে কার্যকর সংলাপে বসার জন্য সরকার ও বিরোধী পক্ষকে উৎসাহিত করে আসছে। তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন যাতে কোনো প্রকারের হস্তক্ষেপ ছাড়াই নিরপেক্ষভাবে কাজ করতে পারে সেটি নিশ্চিত করার বিষয়টি ঢাকাস্থ ব্রিটিশ দূতাবাসের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।



মন্তব্য চালু নেই