মেইন ম্যেনু

নো ওয়ার্ল্ড কাপ, নো ক্রাইসিস : কাতারকে আমিরাত

দোহা ২০২২ বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজন করতে চায় না এবং তাদের সেটা করার ক্ষমতাও নেই বলে মন্তব্য করেছেন সংযুক্ত আরব আমিরাতের জ্যেষ্ঠ একজন কর্মকর্তা। অবরোধের কারণে ২০২২ সালে বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনে কোনো রকম ঝুঁকিতে পড়বে না বলে কাতার বিশ্বকাপ প্রস্তুতির ভারপ্রাপ্ত ব্যক্তির মন্তব্যের জেরে তিনি এ ধরনের কথা বলেন।

আরটি ডটকমের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে লে. জেনারেল ধাহি খালফান নাইম রোববার রাতে টুইট করে জানান, ‘যদি কাতারে বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত না হয়, তাহলে কাতারের সঙ্কট মিটে যাবে।’

এর পর সোমবার সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে নিজস্ব মতামত তুলে ধরেন খালফান। তিনি লেখেন, ‘কাতার ভুয়া সঙ্কটের দাবি করছে এবং বিশ্বকাপ অায়োজনে যেসব স্থাপনা নির্মাণ করতে হবে, তার খরচের ঝামেলা থেকে সরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে।’

প্রসঙ্গত, ইরানের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখা এবং আল কায়েদা, মুসলিম ব্রাদারহুড, ইসলামিক স্টেটসহ জঙ্গি সংগঠনগুলোকে সমর্থন, অর্থায়ন ও লালন-পালনের অভিযোগে গত ৫ জুন দোহার সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে সৌদি জোট।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা টেলিভিশন বন্ধসহ, জঙ্গি সংগঠনগুলোকে সমর্থন ও অর্থায়ন বন্ধের জন্য দোহার প্রতি দাবি জানালেও বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনের ব্যাপারে সে সময় কিছু বলেনি দেশগুলো।

তবে দেশগুলোর অভিযোগ বরাবরই অস্বীকার করে আসছে কাতার। কাতার বিশ্বকাপ আয়োজনের সর্বোচ্চ কমিটির মহাসচিব হাসান আল-থাওয়াদি দ্য অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস নিউজ অ্যাজেন্সিকে শুক্রবার জানান, বেশ কয়েক বছর ধরে আমরা সমালোচনা আর আক্রমণের শিকার, কিন্তু সবসময় আমরা সমালোচনার সামনাসামনি হয়েছি।

তিনি আরও জানান, সামান্য বাড়তি খরচে প্রয়োজনীয় উপাদান আমদানি এবং ভেন্যু নির্মাণের কাজ চলছে। আমাদের প্রকল্প নির্ধারিত শিডিউল অনুযায়ীই চলছে। বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনে এটা (সৌদি জোটের অবরোধ) কোনো প্রভাব ফেলবে না।






মন্তব্য চালু নেই