মেইন ম্যেনু

পরনের কাপড় দিয়ে হাত-পা বাঁধা তরুণীর লাশ

সিলেটের গোলাপগঞ্জে অজ্ঞাত পরিচয় (৩০) এক তরুণীর হাত-পা বাঁধা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলার ঢাকাদক্ষিণ ইউনিয়নের রায়গড় লিচুবাগান এলাকার নাহিদ মিয়ার বাড়ির টিলার পাশ থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সকাল ১০টার দিকে ওই এলাকার নাহিদ মিয়ার বাড়ির টিলার পাশে মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা গোলাপগঞ্জ থানায় খবর দেন। পরে বেলা ১১টার দিকে পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

এ বিষয়ে গোলাপগঞ্জ মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম ফজলুল হক শিবলী বলেন, ওই তরুণীকে অন্য কোথাও ধারালো ছুরি দিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা হয়তো এখানে ফেলে গেছে। নিহতের পরনের সালোয়ার কামিজ ছেঁড়া ছিল।

মরদেহের সুরতহাল প্রতিবেদন প্রস্তুতকারী গোলাপগঞ্জ মডেল থানা পুলিশের এসআই মো. আশরাফ বলেন, নিহতের পরনের কাপড় দিয়ে হাত-পা বাঁধা ছিল। সারা শরীর ছিল রক্তে মাখা। খুনিদের চিহ্নিত করে গ্রেফতার করতে পুলিশ কাজ করছে বলে জানান তিনি।



মন্তব্য চালু নেই