মেইন ম্যেনু

পাসওয়ার্ড ছবিটি পুরোটাই নকল!

ঢালিউডে মালেক আফসারীর সর্বশেষ পরিচালিত ‘পাসওয়ার্ড’ ছবিটিও ব্যাপকভাবে সমালোচিত হয় নকলের অভিযোগে। কোরিয়ান ছবি ‘টার্গেট’র নকল ‘পাসওয়ার্ড’ এমনটাই দাবি ওঠে। এছাড়া ভারতীয় ‘ডিনামাইট’, ‘ওয়েলকাম’, ‘এক থাক টাইগার’ ছবির চরিত্র এবং দৃশ্য ও পোশাক স্টাইলও নকল করা হয়েছে এই ছবিতে।

এর বিপরীতে মালেক আফসারী অনেক সাফাই গাইলেও ধোপে টেকেনি। এবার ছবিটির বিরুদ্ধে গানের সুর নকল করার অভিযোগ আনলেন দেশের জনপ্রিয় সংগীত পরিচালক শওকত আলী ইমন। ছবিটির ‘আগুন লাগাইলো’ শিরোনামের আইটেম গানটি ইমনের একটি গানের সুর থেকে নকল করা হয়েছে বলে দাবি করলেন তিনি।

গত শনিবার বিকালে শওকত আলী ইমন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে একটি ভিডিও পোস্ট করে এ অভিযোগ আনেন। সেখানে তিনি লেখেন, ‘শেষ পর্যন্ত আমার গান ভারত থেকে নকল করিয়ে এনে আবার আমার দেশেই রিলিজ করলেন কেন এই প্রশ্নের উত্তর আমি শওকত আলী ইমন একটু জানতে চাই। একটু অনুমতি নিয়ে নিলে খুশি হতাম।’

চলতি বছরের ১৮ মার্চ ‘ইমন শওকত’ ইউটিউবে রোজিনা খানের কণ্ঠে ও মিজানের কথায় ‘চন্দ্র তারা’ শীর্ষক একটি গান প্রকাশ হয়। ওই গানের সুরের সঙ্গে ‘পাসওয়ার্ড’ ছবিতে কোনালের কণ্ঠে ‘আগুন লাগাইলো’ গানটির সুরের মিল খুঁজে পেয়েছেন ইমন।

তিনি বলেন, ‘কথা হলো গানটি তারা ভারতের লোক দিয়ে তৈরি করিয়েছেন দেশের গানের মানুষদের ওপর ভরসা হারিয়ে। স্বাভাবিকভাবে এই গানটি অনেক ভালো ও ব্যতিক্রমী হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এখানে তো দেখা যাচ্ছে উল্টোটা। ভারতের সংগীত পরিচালক আমার গানের সুরই নকল করে তাদের দিয়ে দিলেন। তারাও যাচাই-বাছাই না করে সেটা চালিয়েছেন। মেধার এমন হাস্যকর অপচয়, অপমান পৃথিবীর আর কোনো দেশে হয় কি না আমার জানা নেই।’

এ ব্যাপারে সেন্সর বোর্ডের সদস্য প্রযোজক খোরশেদ আলম খসরু বলেন, ‘এই অভিযোগটা সত্যি বেদনার। কারণ বিদেশি শিল্পীদের কাছে যাওয়া হয় ব্যতিক্রমী স্বাদ আনার জন্য। কিন্তু বিদেশিরা যদি আমাদের জিনিসকেই নকল করে ধরিয়ে দেন তাহলে আর ভরসা থাকে কী করে। এ বিষয়ে সিনেমার পরিচালক-প্রযোজকদের সচেতন হওয়া উচিত।’

এদিকে এ অভিযোগের ব্যাপারে পরিচালক মালেক আফসারী বলেন, ‘এগুলো নিয়ে আমি ভাবছি না। ‘পাসওয়ার্ড’ সুপারহিট হয়েছে। এখন অনেক কথাই হবে। তাছাড়া শওকত আলী ইমনের পোস্ট করা ভিডিও বা তার গানটি আমি শুনিনি। তাই এটা নিয়ে আমি এখন কিছু বলতে চাই না।’

এদিকে এর মধ্যে অনেক প্রশ্ন তুলেছেন তবে কি নকল ছবির দিকে ঝুঁকছেন শাকিব খান? ২০১৪ সালে ‘হিরো দ্য সুপারস্টার’ ছবি প্রযোজনার মধ্য দিয়ে ২০১৪ সালে প্রথম চলচ্চিত্র প্রযোজনা করেন দেশের শীর্ষ নায়ক শাকিব খান। দেশের প্রধান নায়ক শাকিব খান প্রযোজিত ‘হিরো দ্য সুপারস্টার’ তেলেগু ছবি ‘নায়ক’ ও ‘রেবেল’-এর নকল হিসেবে অভিযুক্ত হয়েছিল। ২০১৪ সালে বিষয়টি নিয়ে সমালোচনা হয় চলচ্চিত্রপাড়ায়। ঠিক একইভাবে তার প্রযোজিত দ্বিতীয় চলচ্চিত্র ‘পাসওয়ার্ড’ও এখন নকলের সম্ভারে পরিপূর্ণ।

চলচ্চিত্রপাড়ায় গুঞ্জন উঠেছে তবে কি নকল ছবির দিকে ঝুঁকছেন দেশের শীর্ষ নায়ক শাকিব খান। যদিও ‘পাসওয়ার্ড’ সুপার ডুপার হিট হয়েছে; কিন্তু ছবিটি পুরোটাই নকলের দায়ে দুষ্ট।

এদিকে শোনা যাচ্ছে শাকিব খান অভিনীত ও প্রযোজিত ‘ফাইটার’ ছবিটিও তামিল ‘সিংহাম’-এর অনুকরণে বানানো হবে। ছবির পরিচালক বদিউল আলম খোকন দাবি করেন, তামিল ‘সিংহাম’ ছবির কপিরাইট কেনা আছে। এটি হবে অফিসিয়াল রিমেক। নকল বলা যাবে না। আমরা আমাদের মতো করে ছবিটি নির্মাণ করব।

বলে রাখা ভালো, তামিল ‘সিংহাম’ ২০১০ সালে মুক্তি পায়। ছবির প্রধান চরিত্রগুলোতে ছিলেন সুরিয়া শিবকুমার, আনুশকা শেঠি ও প্রকাশ রাজ। পরে অবশ্য বলিউড ও টালিউডেও ছবিটির রিমেক করা হয়। সেখানে নায়কের ভূমিকায় অজয় দেবগণ ও জিতকে দেখা গেছে। সেই ছবি মুক্তিরও অনেক বছর পেরিয়ে গেছে।



মন্তব্য চালু নেই