মেইন ম্যেনু

পিকনিকের বাসে তল্লাশি : ২ লাখ ৪০ হাজার ইয়াবা জব্দ

কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে ফেরার পথে চট্টগ্রামে একটি পিকনিকের বাসে তল্লাশি চালিয়ে দুই লাখ ৪০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। এ সময় ছয়জনকে আটক করা হয়েছে।

শনিবার সকালে চট্টগ্রামের কর্ণফুলী নদীর শাহ আমানত সেতু থেকে এসব ইয়াবা উদ্ধার করা হয় বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন র‍্যাবের সহপরিচালক স্কোয়াডন লিডার শাফায়েত জামিল ফাহিম।

র‍্যাব জানিয়েছে, নিউ ক্লাসিক পরিবহনের বাসটি ৪০ জন যাত্রী নিয়ে গত মঙ্গলবার যশোরের পীরগাছা থেকে টেকনাফ পিকনিক করতে আসে। বাসের আরোহিরা সেন্টমার্টিন হয়ে কক্সবাজার আসার পথে ১০ হাজার ইয়াবার ২৪টি প্যাকেট গাড়িতে তুলে নেয়। যাত্রীদের কাপড়ের ব্যাগের সঙ্গে কৌশলে এসব ইয়াবা আনা হয়।

র‍্যাব আরো জানায়, এ ঘটনায় গাড়ির মালিক আতিয়ার রহমান, তাঁর সহযোগী মাসুদ রানা, বাবলু, ইকবাল হোসেন, বাসচালক জুয়েল ও চালকের সহকারী সুমনকে আটক করা হয়েছে। উদ্ধার হওয়া এসব ইয়াবার মূল্য প্রায় ১২ কোটি টাকা।

র‍্যাবের সহপরিচালক স্কোয়াডন লিডার শাফায়েত জামিল ফাহিম বলেন, ‘মূলত পিকনিকের আড়ালে গাড়ির মালিক ইয়াবার ব্যবসা করেন। নতুন গাড়ি কেনার পর এলাকাবাসী ও আত্মীয়স্বজনদের কম টাকায় বেড়াতে নিয়ে আসেন আতিয়ার। তিনি যশোর থেকে বিমানে করে কক্সবাজার আসেন। ফেরার পথে নিজের বাসে করে ইয়াবা নিয়ে ফিরছিলেন।’

পিকনিকের বাসের যাত্রী কলিম উল্লাহ বলেন, ‘যশোর থেকে জনপ্রতি দেড় হাজার টাকায় তিনদিনের পিকনিকে আমাদের কক্সবাজার, টেকনাফ ও সেন্টমার্টিনে নিয়ে আসা হয়। গাড়িটি বুধবার যশোর থেকে রওনা দেয়। শুক্রবার কক্সবাজার থেকে আমাদের টেকনাফ নিয়ে যায়। রাতে গাড়িতে করে টেকনাফ থেকে চট্টগ্রাম হয়ে যশোর যাচ্ছিলাম। পথে র‍্যাব আটক করে ইয়াবা উদ্ধার করে। আমরা যাত্রীরা এ ব্যাপারে কিছু জানতাম না।’



মন্তব্য চালু নেই