মেইন ম্যেনু

পোড়া হাতে টুথপেস্ট ঘসার ফল!

অনেকেই পোড়াক্ষতের চিকিৎসায় টুথপেস্ট ব্যবহার করে থাকেন। এটা ব্যবহারের বিষয়ে অন্যদের সতর্ক করতে লোমহর্ষক ছবি শেয়ার করেছেন একজন ডাক্তার।

গরম তেলে হাত পুড়িয়ে ফেলেন মালয়েশিয়ার এক নারী। তিনি বাড়িতেই টুথপেস্ট ব্যবহারে প্রতিকারের চেষ্টা করেন। কিন্তু এর ফলে ব্যথা তো কমেইনি বরং তার হাতটির আকার পাল্টে যায়। বেলুনের মতো ফুলে যায় হাতটি।

মালয়েশিয়ার একটি হাসপাতালরে ডাক্টার কামরুল আরিফিন সতর্ক করে দিয়ে বলেন, পুড়ে যাওয়া সংক্রান্ত সমস্যায় ঘরোয়া প্রতিকার ব্যবহার করলে সংক্রমণ ও প্রদাহের সৃষ্টি হতে পারে।

ডাক্তাররা লক্ষ্য করেছেন, পুড়ে যাওয়া ক্ষত প্রতিকারে অনেকে টুথপেস্টও ব্যবহার করে থাকেন।

ডাক্তার আরিফিন বলেন, তিনি দেখেছেন অনেকে তেল, আটা, সয়া সস, ডিম এবং মাখন অগ্নিদগ্ধের চিকিৎসায় ব্যবহার করে থাকে।

তিনি অগ্নিদগ্ধের চিকিৎসায় মানুষকে চিকিৎসা পরামর্শ অনুসরণ করার আহ্বান জানান।

এ ক্ষেত্রে চিকিৎসকের পরামর্শের মধ্যে রয়েছে, সম্ভব হলে পুড়ে যাওয়া স্থান থেকে পোড়া পোশাক, গহনা বা ঘড়ি অপসারণ করা। তারপর ১৫ থেকে ২০ মিনিটের জন্য তা পরিস্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলে শুকানো উচিত।

তিনি আরো বলেন, পোড়া রোগীদের ফোস্কায় খুবই ঠান্ডা পানি বা বরফ দিয়ে চিকিৎসা করার চেষ্টা করা উচিত নয়।

তিনি পরামর্শ দেন, বেশি গুরুতর অগ্নিদগ্ধ লোক অথবা হাতের তালু বা সংবেদনশীল অঙ্গ পুড়ে যাওয়ার অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

এদিকে, টুথপেস্ট জায়ান্ট কোলগেট তাদের ওয়েবসাইটে একটি পরামর্শমূলক পোস্ট দিয়েছে। পুড়ে যাওয়া ক্ষতে যারা টুথপেস্ট ব্যবহার করেন তাদের উদ্দেশে এই পোষ্ট।

তারা সতর্ক করেছে : টুথপেস্টে অ্যাব্রেসিভ এবং ডিটারজেন্ট বিদ্যমান যা আপনার দাঁত পরিষ্কার করার জন্য ভালো কাজ করে। কিন্তু পোড়াক্ষতের ব্যথা নিরাময়ে এটি ভালো নয়। সূত্র : দ্য সান



মন্তব্য চালু নেই