মেইন ম্যেনু

প্রথমবারের মতো পাইলট-কেবিন ক্রু হচ্ছেন সৌদি নারীরা

প্রথমবারের মতো সৌদি আরবের কয়েকটি এয়ারলাইন্স দেশটির মেয়েদের সহকারী পাইলট এবং কেবিন ক্রু হিসেবে নিয়োগ দিচ্ছে। ক্যারিয়ার ফ্লাইনাস নামের একটি এয়ারলাইন্স তাদের প্রতিষ্ঠানের চাকরির বিজ্ঞাপনে সৌদি মেয়েদের নিয়োগ দেওয়ার কথা জানিয়েছে। গত জুনে দেশটিতে মেয়েদের গাড়ি চালানোর ওপর নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে নেয়া হয়। এবার সেদেশের নারীরা বিমানও চালাবে।

নারী প্রার্থীদের জন্য আবেদন করার ঘোষণা দেওয়ার পর ওই এয়ারলাইন্সকে উদ্ধৃত করে আল জাজিরা তাদের প্রতিবেদনে জানায়, ফ্লাইনাস সৌদি মেয়েদের ক্ষমতায়নের মাধ্যমে দেশটির ইতিবাচক পরিবর্তনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে উৎসাহী।

এয়ারলাইন্সটির এক মুখপাত্র জানিয়েছে যে, প্রায় এক হাজার সৌদি নারী ওই পদের জন্য আবেদন করেছেন। এই ঘটনা নারীদের ওপর নানারকম বিধিনিষেধ আরোপ করা সৌদি আরবের নমনীয় হওয়ার ইঙ্গিত দিচ্ছে।

সৌদিতে নারীদের জন্য আইনগতভাবে বিমান পরিবহন খাতে কাজ করতে কোনো নিষেধাজ্ঞা না থাকলেও বিগত দিনগুলোতে এই কাজগুলো ফিলিপাইনের মতো বিদেশি দেশগুলোর নারীদের মাধ্যমে করানো হচ্ছিল।

আর এই ঘোষণাটি এলো কয়েকদিন আগে ফ্লাইএডিল নামের আরেকটি এয়ারলাইন্সে সৌদি নারীদের নিয়োগ দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করার কিছুদিন পর। কয়েকদিন আগে সৌদির ফ্লাই এডিল নামের স্বল্প ভাড়ার ওই এয়ারলাইন্সটি সৌদি নারীদের কেবিন ক্রু হিসেবে নিয়োগ দেওয়া শুরু করে।

চলতি বছরের জুনে সৌদি বাদশাহ মোহাম্মদ বিন সালমান কর্মক্ষেত্রে নারীদের অংশগ্রহণ বাড়াতে দেশটির নারীদের ওপর দীর্ঘদিনের নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়ে তাদের গাড়ি চালানোর অনুমতি দেন।



মন্তব্য চালু নেই