মেইন ম্যেনু

প্রিয়াঙ্কার অদ্ভুত সাজ নিয়ে মুখ খুললেন মা মধু

এবারের ৭২তম মেট গালায় ভিন্নরূপে আবির্ভূত হন বলিউড-হলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। মুখখানি চেনা হলেও পুরো সাজে অনেকটাই অচেনা ছিলেন ৩৬ বছরের এ সুন্দরী। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমজুড়ে তাঁর অদ্ভুত সাজ নিয়ে নানা বিদ্রুপ। মিমে সয়লাব নেট দুনিয়া।

আন্তর্জাতিক তারকারা তাঁদের ফ্যাশন-নিরীক্ষা চালান মেট গালায়। প্রতিবছর মে মাসের প্রথম সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে বসে এই আন্তর্জাতিক ফ্যাশন আসর। নিউইয়র্কের মেট্রোপলিটন শিল্প জাদুঘরে বসে এবারের প্রতীক্ষিত আসর। বিশ্বজুড়ে এখন তারকাদের পোশাক আর ফ্যাশন-সেন্স নিয়ে চলছে ঘন আলোচনা। আলোচনার কেন্দ্রে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। তাঁর ‘ক্যাম্প : নোটস অন ফ্যাশন’ থিম লুক অনেকেরই হৃদয় জয় করতে ব্যর্থ হয়েছে।

আর কে কী ভাবছেন, সেই কথা আপাতত থাক। কিন্তু কী ভাবছেন প্রিয়াঙ্কার মা মধু চোপড়া?

প্রিয়াঙ্কার মেট গালা লুক নিয়ে গণমাধ্যমকর্মীদের জিজ্ঞাসার জবাবে মধু চোপড়া বলেছেন, ‘একজন সাধারণ মানুষ ও এই দেশের নাগরিক হিসেবে বলতে চাই, আমি একটি স্বাধীন দেশে বাস করি। যতদূর বলতে পারি, আমি কারো ক্ষতির কারণ হইনি, আমার যেমন ইচ্ছে সেভাবেই জীবনযাপন করব। শুধু আমিই নই, সবাই। যদি আপনার ধুতি বা লুঙ্গি বা ক্যাজুয়াল পোশাক পরতে ইচ্ছে হয়, তো পরুন।’

ফের এক জিজ্ঞাসার উত্তরে প্রিয়াঙ্কার মা বলেন, ‘এ নিয়ে কী প্রতিক্রিয়া দেব। যদি ও (প্রিয়াঙ্কা) এখানে থাকত, ওকে দুই হাত দিয়ে জড়িয়ে ধরতাম। ওকে দেখতে খুবই সুন্দর লাগছিল, একদম ব্যতিক্রম লাগছিল।’

আগে থেকেই ভক্তরা অপেক্ষা করছিলেন মেট গালায় ভারতে ‘দেশি কন্যা খ্যাত’ প্রিয়াঙ্কা ও তাঁর স্বামী নিক জোনাসের সাজ দেখার জন্য। বিয়ের পর এটাই তাঁদের প্রথম মেট গালা। মজার ব্যাপার হলো, ২০১৭ সালের মেট গালায় প্রথমবার দেখা হয়েছিল এ যুগলের। সেবার লালগালিচায় কিংবদন্তি ডিজাইনার রালফ লরেনের পোশাক পরে হেঁটেছিলেন পিসি।

প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে সর্বশেষ হলিউড ছবি ‘ইজ নট ইট রোমান্টিক’-এ দেখা গিয়েছে। দীপিকা পাড়ুকোন-রণবীর সিং অভিনীত ‘বাজিরাও মাস্তানি’র পর তাঁকে আর বলিউডি সিনেমায় দেখা যায়নি।

প্রিয়াঙ্কাকে আগামীতে ‘দ্য স্কাই ইজ পিংক’-এ দেখা যাবে। সোনালি বোস পরিচালিত ছবিটি অল্প বয়সে জটিল রোগে ভোগা আয়শা চৌধুরীকে নিয়ে নির্মিত, জীবনের শেষ দিনগুলোতে যিনি প্রেরণাদায়ী বক্তা হিসেবে কাজ করেছেন। এতে আরো রয়েছেন দঙ্গলকন্যা জাইরা ওয়াসিম, নির্মাতা-অভিনেতা ফারহান আখতার ও রোহিত সারাফ। এ ছবি দিয়ে দীর্ঘদিন পর বলিউডে ফিরবেন পিসি।



মন্তব্য চালু নেই