মেইন ম্যেনু

ফণীর প্রভাবে ঝালকাঠিতে বেড়িবাঁধ ভেঙে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

ঝালকাঠিতে ফণীর প্রভাবে প্রবল জোয়ারের চাপে রাজাপুর এবং কাঁঠালিয়া উপজেলার বিষখালী নদীর বেড়িবাঁধ কয়েকটি স্থানে ভেঙে এবং পূর্বে ভাঙা অংশ দিয়ে পানি ঢুকে ২৫টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এছাড়া রাজাপুরে পানিতে ডুবে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

বিভিন্ন স্থানে বেশকিছু কাঁচা ঘরবাড়ি ও গাছপালা ভেঙে পড়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে উঠতি বোরো ফসল।

এদিকে ঝড়ের প্রভাব কমে আসায় আশ্রয়কেন্দ্র থেকে লোকজন বাড়ি ফিরতে শুরু করেছে। নৌযান চলাচলও স্বাভাবিক হয়ে এসেছে।

ফণীর প্রভাবের প্লাবনের পানিতে ডুবে শনিবার দুপুরে রাজাপুরের রড়ইয়া ইউনিয়নের নিজামিয়া গ্রামে সানিহা আক্তার নামে দুই বছরের ওই শিশু মারা যায়।

সানিহা উপজেলা সদরের বাগড়ি গ্রামের মহিলা কলেজ এলাকার সৌদি প্রবাসী মো. শামিম খানের মেয়ে।

নিহতের মামা মো. মারুফ লস্কর জানান, সানিহা তার মায়ের সাথে দুইদিন আগে নানাবাড়ি নিজামিয়ায় বেড়াতে এসেছিল। বিষখালির নদীর তীরবর্তী নিজামিয়া গ্রামে জোয়ারের পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় তাদের ঘরের চারপাশ প্লাবিত হয়। দুপুরে মা ও নানির সাথে রান্নাঘরে খেলা করার সময় তাদের অগোচরে পাশের পানিতে পড়ে যায় সানিহা। শিশুটিকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিলে রাজাপুর স্বাস্থ্যকেন্দ্রের আবাসিক মেডিকেল অফিসার আবুল খায়ের রাসেল তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে বিষখালী নদীর পানি স্বভাবিকের চেয়ে ৩/৪ ফুট বৃদ্ধি পাওয়ায় পানির প্রবল চাপে রাজাপুরের রড়ইয়া এবং কাঁঠালিয়ার উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন লঞ্চঘাট এলাকার বেড়িবাধ ভেঙে যায়। এতে কাঁঠালিয়ার লঞ্চঘাট এলাকা, জয়খালী, চিংড়াখালী, মশাবুনিয়া, হেতালবুনিয়া এবং রাজাপুরের রড়ইয়া, নিজামিয়াসহ জেলার অন্তত ২৫টি গ্রাম প্লাবিত হয়। গ্রামে পানি ডুকে কাঁচা ঘরবাড়ি, বীজতলা ও ফসলের ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা করা হচ্ছে। ভেসে গেছে বেশকিছু পুকুর ও ঘেরের মাছ।

কাঁঠালিয়ার উপজেলা নির্বাহী অফিসার আকন্দ মোহাম্মদ ফয়সাল উদ্দীন জানান, লঞ্চঘাট এলাকার বেড়িবাঁধ ভেঙে উপজেলা সদরসহ নিম্নাঞ্চলে পানি ঢুকেছে। বাঁধটি দ্রুত সংস্কার করা প্রয়োজন।

ঝালকাঠি পৌরসভার নতুন কলাবাগান, চর এলাকাসহ সুগন্ধা তীরের বাসিন্দাদের খোঁজ-খবর নিয়েছেন মেয়র লিয়াকত আলি তালুকদার ও কাউন্সিলররা।



মন্তব্য চালু নেই