মেইন ম্যেনু

ফের ১০ টাকা কেজি দরে চাল পাবে ৫০ লাখ পরিবার

আগামী মাস থেকে হতদরিদ্রদের মাঝে ১০ টাকা কেজি দরে ফের চাল বিক্রির কর্মসূচি হাতে নিয়েছে সরকার। খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় অতিদরিদ্র ৫০ লাখ পরিবারকে এই দরে প্রতি মাসে ৩০ কেজি করে চাল দেয়া হবে। খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম (বৃহস্পতিবার) সচিবালয়ে খাদ্য অধিদফতরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘দুর্যোগের কারণে সাময়িকভাবে এই কর্মসূচি বন্ধ ছিল। এখন আর তা নেই। মার্চ থেকে এপ্রিল পর্যন্ত এ কর্মসূচি ফের শুরু হবে এবং আগামীতেও তা চালু থাকবে।’

সরকারের ৬ লাখ মেট্রিকটন চাল কেনার সিদ্ধান্ত ছিল এবার। এরইমধ্যে ৫ লাখ ৪০ হাজার মেট্রিকটন চাল কেনা হয়েছে উল্লেখ করে কামরুল জানান, সরকারি গুদামে ১৪ লাখ ২০ হাজার মেট্রিক টন খাদ্যশস্য মজুদ আছে। এর মধ্যে ১০ লাখ ৪০ হাজার টন চাল এবং বাকিটা গম। এ সপ্তাহের মধ্যে ১৬ লাখ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য মজুদ হবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে খাদ্য সচিব শাহবুদ্দিন আহমদ, খাদ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক বদরুল হাসান ছাড়াও খাদ্য অধিদফতরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ৭ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কুড়িগ্রামের চিলমারীতে ১০ টাকা কেজিতে চাল কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। ‘শেখ হাসিনার বাংলাদেশ, ক্ষুধা হবে নিরুদ্দেশ’ স্লোগানে’ ‘খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি’ নামে এ কর্মসূচিতে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগে বেশ কয়েকজনের ডিলারশিপ বাতিল হয়। ওই সময় প্রধানমন্ত্রী অনিয়মের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের হুঁশিয়ারিও দিয়েছিলেন।



মন্তব্য চালু নেই