মেইন ম্যেনু

ফেসবুকের পোস্টারই যখন ফেসবুকের বিরুদ্ধে

ভুয়া খবর ছড়ানো, ব্যবহারকারীদের তথ্য ফাঁস এবং মার্কিন নির্বাচনে কুপ্রভাবের মতো অভিযোগের সুনামি ঠেকাতে ইতিবাচক প্রচারণায় হাজার হাজার ডলার ঢালছে ফেসবুক। তবে লন্ডনে ইতিবাচক প্রচারণায় টাঙানো ফেসবুকের পোস্টারগুলো যেন বুমেরাং হয়ে ফেসবুকের বিরুদ্ধেই তেড়ে আসছে।

কারণ এসব পোস্টারে ফেসবুকের বিবৃতির নিচে যুক্ত হচ্ছে নতুন নতুন বাক্য। এসব বাক্যে ফেসবুকের সর্বগ্রাসী ব্যবসায়ী নীতির বিরোধীতা করছে কে বা কারা।

‘প্রোটেস্ট পেন্সিল’ নামে অজ্ঞাতনামা স্ট্রিট আর্টিস্ট ফেসবুকের লাগানো পোস্টারের বার্তার নিচে বাড়তি বাক্য যোগ করে দিচ্ছে বলে জানা গেছে। ফেসবুকের জন্য দারুণ অস্বস্তিকর এসব বাড়তি বার্তা যোগ করা পোস্টারের ছবি ঘুরে বেড়াচ্ছে টুইটার, ইন্সটাগ্রাম এমনকি খোদ ফেসবুকেই!

যেমন একটি বাস স্টপে লাগানো ফেসবুকের পোস্টারের ফেসবুক লিখেছিলো, “ফেক নিউজ ইজ নট আওয়ার ফ্রেন্ড।” এই লেখাটির নিচে বাড়তি অংশ যোগ করে প্রোটেস্ট পেন্সিল লিখে দিয়েছে,“ এটাই আমাদের আয়ের সবচেয়ে বড় উৎস”!

আরেকটি পোস্টারে ফেসবুক লিখেছিলো, “তথ্যের অপব্যবহারের সঙ্গে আমাদের বন্ধুত্ব নেই।”

এই বাক্যের নিচে প্রতিবাদকারীরা লিখে দিয়েছে, “এটাই আমাদের বিজনেস মডেল।”



মন্তব্য চালু নেই