মেইন ম্যেনু

বইমেলায় সাড়া জাগিয়েছে ‘মুক্তিযুদ্ধের সেরা কিশোর গল্প’

৬ ফেব্রুয়ারী বইমেলায় এসেছে তরুণ লেখক ও সাংবাদিক আবিদ আজম সম্পাদিত ‘মুক্তিযুদ্ধের সেরা কিশোর গল্প’ বইটি। বিজয়ের ৪৮ বছরে দেশসেরা ৪৮ লেখকের মুক্তিযুদ্ধের গল্প নিয়ে বইটি প্রকাশিত হয়েছে।

তিনশ পৃষ্ঠার বইটির প্রচ্ছদ করেছেন ধ্রুব এষ। মূল্য রাখা হয়েছে ৫৪০ টাকা।

বইটি প্রকাশ করেছে লেখালেখি প্রকাশন। বইমেলায় ৪৩৮ (সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) নম্বর স্টলে বইটি পাওয়া যাচ্ছে। এছাড়া রকমারি ডটকম থেকেও সংগ্রহ করতে পারবেন।

‘মুক্তিযুদ্ধের সেরা কিশোর গল্প’ বইটি বুধবার মেলায় আসার পর বেশ সাড়া জাগিয়েছে। সন্ধ্যার পর সরেজমিনে ৪৩৮ নম্বর স্টলের সামনে গিয়ে অনেকের বইটি সংগ্রহ করতে দেখা যায়।

সংকলনের ভূমিকায় প্রয়াত বরেণ্য কবি বেলাল চৌধুরী লিখেছেন, ‘যোগ্য সম্পাদনায় গুরুত্বপূর্ণ এ কাজটি সম্পন্ন হয়েছে ভেবে আশ্বস্ত হয়েছি। এ ধরনের উদ্যম সত্যিই প্রশংসনীয়। এমন উদ্যোগ ইতোপূর্বে চোখে পড়লেও আন্তরিকতা, দক্ষতার পাশাপাশি গ্রন্থের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাই কাজের ব্যাপারে যথেষ্ট সতর্ক ছিলেন বলে আমার ধারণা।’

‘আমাদের পক্ষে যা করা সম্ভব হয়নি, এ সময়ের তরুণরা নিজের মেধা-মনন ও লেখনী প্রয়োগ করে তা সম্ভবপর করে তুলবে বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস’, বলে উল্লেখ করেছেন বেলাল চৌধুরী।

মুক্তিযুদ্ধের সেরা কিশোর গল্পের লেখকসূচিতে আবদ্ধ হয়েছেন আনোয়ারা সৈয়দ হক, সেলিনা হোসেন, হুমায়ূন আহমেদ, আমজাদ হোসেন, আলী ইমাম, ইমদাদুল হক মিলন, মঈনুল আহসান সাবের, মুহম্মদ জাফর ইকবাল, ফারুক নওয়াজ, আনিসুল হক ও আফরোজা পারভীন। আরো গল্প লিখেছেন এনায়েত রসুল, লুৎফর রহমান রিটন, আমীরুল ইসলাম, রফিকুর রশীদ, জাকির তালুকদার, ফারুক হোসেন, রহীম শাহ, খন্দকার মাহমুদুল হাসান, আহমাদ মাযহার, ধ্রুব এষ, নাসিরুদ্দীন তুসীসহ মোট আটচল্লিশজন গল্পকার।

মুক্তিযুদ্ধের সেরা কিশোর গল্প সম্পর্কে সম্পাদক আবিদ আজম জানান, মহান মুক্তিযুদ্ধ যেসব লেখার উপজীব্য, তা নিয়ে আর আগ বাড়িয়ে বলবার কিছু নেই। মুক্তিযুদ্ধের বাস্তবতার প্রেক্ষাপটে রচিত হওয়ায় সংকলনের গল্পগুলো শেষ পর্যন্ত আর গল্প থাকেনি, হয়ে উঠেছে মুক্তিযুদ্ধের ভিন্ন রকম প্রামাণ্য ইতিহাস। প্রকাশনাটি নিশ্চয়ই সবাইকে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করবে।

সংকলনটি বিশেষভাবে বিপণনের একটি মহৎ উদ্দেশ্য রয়েছে জানিয়ে আবিদ আজম বলেন, ‘সংকলনটির লভ্যাংশের সঙ্গে স্পন্সর যুক্ত করে দেশের আটচল্লিশজন মুক্তিসংগ্রামীকে সম্মাননা দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে আমাদের।’


 



মন্তব্য চালু নেই