মেইন ম্যেনু

বাংলাদেশের বিপক্ষে টসের পরই বিদায় নেবে পাকিস্তান

গতকাল নিউজিল্যান্ডের দিকে তাকিয়ে ছিল পাকিস্তানের সমর্থকরা। কিন্তু তাদের হতাশায় ডুবিয়ে পাকিস্তানের বিদায় প্রায় নিশ্চিত করেছে নিউজিল্যান্ড। কিউইদের ১১৯ রানে হারিয়ে তৃতীয় দল হিসেবে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে উঠেছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড।

এক কথায় নিজেদের পাশাপাশি নিউজিল্যান্ডকেও সেমিতে নিয়ে গেছে ইংলিশরা। তবে প্রেক্ষাপট ভিন্ন হতো নিউজিল্যান্ড জিতলে। সেক্ষেত্রে পাকিস্তানের সেমিফাইনালে যাওয়ার সমীকরণ সহজ হয়ে যেত। বাংলাদেশকে ১ রান কিংবা ১ উইকেটে হারাতে পারলেও শেষ চার নিশ্চিত হয়ে যেত সরফরাজের দলের।

এখন শুধু হারানোই নয় অসম্ভবকে সম্ভব করতে হবে ৯২ এর চ্যাম্পিয়নদের। রানরেটের এ ঘাটতি পুষিয়ে সেমিফাইনালে ওঠা গাণিতিকভাবে সম্ভব হলেও বাস্তবে প্রায় অসম্ভব।

সেমিতে যেতে হলে বাংলাদেশকে অন্তত ৩১১ রানে হারাতে হবে পাকিস্তানকে। প্রথমে ব্যাট করে পাকিস্তানকে ৩৫০ রান করতে হবে। বাংলাদেশকে অলআউট করতে হবে ৩৯ রানে। সরফরাজদের জিততে হবে ৩১১ রানে। তবেই তারা সেমিতে যাবে।

দ্বিতীয় সমীকরণ হলো ব্যাট করে ৪০০ রান করতে হবে পাকিস্তানের। জিততে হবে ৩১৬ রানে। তৃতীয় সমীরকণে ৪৫০ রান করতে হবে পাকিস্তানকে। বাংলাদেশকে ৩২১ রানে হারাতে পারলেই সেমিফাইনালে যাবে তারা।

অন্যদিকে বাংলাদেশ টস জিতলে আর কোনো অঙ্কই কষা লাগবে না। প্রথমে ব্যাট করা বাংলাদেশকে যদি শূন্য রানেও অলআউট করে পাকিস্তান। এরপরও কোনো সম্ভাবনাই থাকবে না। বল মাঠে গড়ানোর আগেই বিদায় নেবে তারা।

নিউজিল্যান্ডও তাই সেমিফাইনালে উঠে গেছে বলা যায়। বিশ্বকাপে এই প্রথম টানা তিন ম্যাচে হারল কিউইরা। পয়েন্ট টেবিলে তাই তারা চারে শেষ করল।

ভারত এবং অস্ট্রেলিয়ার একটি করে ম্যাচ বাকি। দু’দলই জিতলে অস্ট্রেলিয়া পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকবে। ভারত শেষ করবে দ্বিতীয় অবস্থানে থেকে। অন্যথায় অস্ট্রেলিয়া যদি দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে হেরে যায় আর ভারত নিজেদের শেষ ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে হারাতে পারে তাহলে তারাই উঠবে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে।



মন্তব্য চালু নেই