মেইন ম্যেনু

বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক মুক্তি আন্দোলন এর উদ্যোগে সমাবেশ অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিনিধি: শনিবার সকাল ১১.০০ টায় বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক মুক্তি আন্দোলন এর উদ্যোগে জাতীয় প্রেসক্লারে সামনে দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণ করা, দুর্নীতিমুক্ত দেশ গড়া ও বাড়ি ভাড়া নিয়ন্ত্রণ আইন-১৯৯১ বাস্তবায়ন করার দাবিতে এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশ প্রধান অতিথি ছিলেন সাবেক মন্ত্রী ও চেয়ারম্যান, বিএলডিপি, কো-চেয়ারম্যান, বিএনএ এম নাজিমুদ্দিন আল আজাদ, । উদ্বোধক কাজী আরেফ ফাউন্ডেশন,সভাপতি কাজী মাসুদ আহম্মেদ। প্রধান আলোচক ছিলেন, বাংলাদেশ কংগ্রেস চেয়ারম্যান এডভোকেট কাজী রেজাউল হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন ন্যাপ ভাসানী চেয়ারম্যান, এম এ ভাসানী, গণমোর্চা সমন্বয়কারী মোহাম্মদ মাসুম, বাংলাদেশ লেবার পার্টি চেয়ারম্যান, মোঃ শামসুল হুদা মামুন,বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক মুক্তি আন্দোলন যুব বিষয়ক সম্পাদক রাজীব হোসেন রাজন , বিআরপি চেয়ারম্যান মোঃ দিপু মীর, মুফাসসির বজলুল হক আমিনী, বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক আন্দোলন চেয়ারম্যান এম আর জাফরুল্লাহ চৌধুরী, বাংলাদেশ জনতা পার্টি প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান এ এম আনোয়ার শাহ, লোকশক্তি পার্টি সভাপতি শাহিকুল আলম টিটু, বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক মুক্তি আন্দোলন ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মোঃ তোজাম্মেল হক তাজেম,ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ,বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক মুক্তি আন্দোলন , আহ্বায়ক , অলিউল্লাহ চৌধুরী,ঢাকা মহানগর উত্তর আহ্বায়ক ,শহিদুল ইসলাম হাওলাদার , বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক মুক্তি প্রতিবন্ধী শ্রমিক আন্দোলন সভাপতি আলমগীর হোসেন মন্ডল ,সাভার সভাপতি মোঃ জাকির শিকদার, জাসদ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির । সভাপতিত্ব করেন, বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক মুক্তি আন্দোলন চেয়ারম্যান ও সভাপতি, ভাড়াটিয়া ঐক্য আশরাফ আলী হাওলাদার, ।

সভাপতির বক্তব্যে বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক মুক্তি আন্দোলনের চেয়ারম্যান মোঃ আশরাফ আলী হাওলাদার বলেন, দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। যারা নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস মজুদ করে জিনিসপত্রের দাম বাড়িয়ে দেয় তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে। যারা দুর্নীতি করে কোটি কোটি টাকার মালিক হয়েছেন সেসকল দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। বাড়ি ভাড়া আইন-১৯৯১ বাস্তবায়ন করতে হবে। এ আইনে আছে কোথায় কত টাকা ভাড়া, কত স্কয়ার ফুট ভাড়া, আবাসিক এলাকায় কত টাকা ভাড়া, অনাবাসিক এলাকায় কত টকা ভাড়া এবং কি ভাবে বাড়ি ভাড়া নেবেন, কি ভাবে বাড়ি ভাড়া দেবেন এবং সরকারি আইন মোতাবেক ভাড়া দেওয়া ও নেওয়া হলে সরকার রাজস্ব পাবেন। যদি প্রায় ২০ হাজার ওপরে বাড়ি ভাড়া হলে ব্যাংকের মাধ্যমে জমা দিতে হবে। আর যদি ২০ হাজারের নিচে হয় তাহলে বাড়ি ভাড়ার টাকা রশিদের মাধ্যমে জমা দিতে হবে। ভাড়াটিয়া বাড়ির মালিকের কাছে জিম্মি হয়ে আছে। তাই এ বাড়ি ভাড়া আইন-১৯৯১ বাস্তবায়ন করা অতি জরুরী। এ ব্যাপারে অনেক মানববন্ধন ও আলোচনা সভা হয়েছে। আমরা কোন সমাধান পাইনি। আমরা চাই এই বাড়ি ভাড়া আইন-১৯৯১ বাস্তবায়ন হলে বাড়ির মালিক ও ভাড়াটিয়ার সাথে সুসম্পর্ক গড়ে উঠবে।



মন্তব্য চালু নেই