মেইন ম্যেনু

বাবার মরদেহের পাশে দাঁড়িয়ে কাঁদছে শিশু, একদিনেই সংগ্রহ ৩০ লাখ

বাবার মরদেহের পাশে দাঁড়িয়ে কাঁদছে শিশুটি। হৃদয়বিদারক সেই দৃশ্যের ছবি ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়। টুইটারে শেয়ার হয়েছে সাত হাজারের বেশি। শুধু ভাইরালই হয়নি, একদিনে ছেলেটির পরিবারের সাহায্যার্থে সংগ্রহ হয়েছে ত্রিশ লাখ রুপি। মঙ্গলবার বিবিসির এক প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে।

শিশুটির বাবার নাম অনিল (২৭)। ভারতের দিল্লীতে একজন পরিচ্ছন্ন কর্মী হিসেবে কাজ করতেন। নর্দমা পরিষ্কারের সময় দড়ি ছিড়ে ভেতরে পড়ে গিয়ে তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনার পর শিভ সানি নামে এক স্থানীয় সাংবাদিক হাসপাতালে গিয়ে বাবা-ছেলের ওই দৃশ্য দেখতে পান। অতঃপর তিনি ছবি তুলে টুইটারে শেয়ার করেন। দৃশ্যটি তাকে একটা ‘ঝাঁকুনি’ দেয় বলে সানি বিবিসিকে জানান।

একজন ক্রাইম রিপোর্টার হিসেবে অনেক ট্রাজেডি দেখেছেন। তবে এমন হৃদয়বিদারক দৃশ্য আগে কখনও দেখেননি উল্লেখ করে সানি বলেন, ‘এটা এমন কিছু ছিলো যা আগে কখনোই দেখিনি।’

বিবিসি বলছে, ভারতে প্রতি বছর এভাবে প্রায় ১০০ পরিচ্ছন্ন কর্মীর মৃত্যু হয়। তবে যথাযথ নিরাপত্তা সরঞ্জামের অভাবেই মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে বলে শ্রমিক ইউনিয়নের অভিযোগ।

ভারতে এরকম দুঃখজনক ঘটনা অনেক ঘটছে উল্লেখ করে সানি বলেন, আমি শুধু পরিচ্ছন্ন শ্রমিকদের মৃত্যুর দিকে মনোযোগ আকর্ষণ করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু ছবিটি শিশুটির পরিবারের গল্পকেও তুলে ধরেছে।

বাবার শোকে কাতর ওই শিশুটির বয়স মাত্র ১১ বছর জানিয়ে সানি বলেন, অনিলের আরো দুটি মেয়ে আছে। যাদের বয়স সাত ও তিন। তাদের পক্ষে বাবার শেষকৃত্য করার সামর্থ্য ছিলো না। এমনকি গত সপ্তাহে অনিলের চার মাসের এক ছেলে নিউমোনিয়ায় ভুগে মারা যায়। টাকার অভাবে চিকিৎসা করাতে পারেনি।

পরে ভারতীয় এই সাংবাদিকের আহ্বানে উদয় ফাউণ্ডেশন নামে এক এনজিও শিশুটির পরিবারের পাশে দাঁড়ায়। শুধু তাই নয়, অনালাইনের মাধ্যমে একদিনেই ৩০ লাখ রুপির তহবিল সংগ্রহ করে দেয় এনজিওটি।



মন্তব্য চালু নেই